‘দালাল’:
————

‘র’ দিয়ে শব্দটা শুরু বাংলাদেশে এবং জনমানুষের মুখে মুখে ‘-ন্ডিয়ার দালাল’ এই শব্দ হামেশাই শোনা যায় !!

রাত-দিন ২৪ ঘণ্টা লন্ডন-অ্যামেরিকা যাবার জন্য পাগল হয়েও লন্ডন-অ্যামেরিকার দালাল হতে পারেনা কেউ, অথচ বাংলাদেশের হিন্দু হলো ‘–লাউন’ এবং ‘-ন্ডিয়ার দালাল’ !! ভারতের পক্ষে অথবা পাকিস্তানের বিপক্ষে কেউ কথা বললেই সে ‘–লাউন’ এবং ‘-ন্ডিয়ার দালাল’ !

‘৪৭ এ উপমহাদেশ দ্বিখণ্ডিত হয়ে জন্ম নেয় দুটি রাষ্ট্রের ভারত-পাকিস্তান;যার মধ্যে পাকিস্তান পুরোপুরি ধর্ম ভিত্তিক একটি রাষ্ট্র । ইসলামকে ঢাল করে জন্ম নেয় পূর্ব ও পশ্চিম পাকিস্তান। পশ্চিম পাকিস্তানিদের মত বেশিরভাগ পূর্ব পাকিস্তানিরাও শুরু থেকেই ভারত বিরোধী, কিন্তু মজার ব্যাপার হল পূর্ব পাকিস্তানের সাচ্চা বাঙালি-পাকিস্তানিরা যতই ভারত বিরোধী হোক না কেন জাতিগতভাবে তারা বাঙালিই ।  পশ্চিম পাকিস্তানিদের কাছে বাংলা মাত্রই হিন্দুদের ভাষা,ভারতের ভাষা;বাঙালি সংস্কৃতি হিন্দুদের সংস্কৃতি,ভারতের সংস্কৃতি । এর ফলে বাঙালি পাকিস্তানিদের তারা কখনই পাকিস্তানি ভাবতে পারেনা বা ,মুসলিমও ভাবতে পারেনা ।

‘৭১ এ দুই পাকিস্তানের একসাথে থাকার শেষ দিন পর্যন্ত পশ্চিম পাকিস্তানিরা, পূর্ব পাকিস্তানী বাঙালিদের ভারতের দালাল বলে মনে করতো । স্বাধীনতাকামী প্রত্যেকটা বাঙ্গালিকে তারা ভারতের দালাল মনে করতো । মুক্তিযোদ্ধাদের ভারতের দালাল মনে করতো । ‘জয় বাংলা’ শ্লোগান দেওয়া প্রত্যেক বাঙ্গালিকে তারা ভারতের দালাল মনে করতো । বাংলাদেশের স্বাধীনতা যুদ্ধে ভারতে যে ১ কোটি শরণার্থী আশ্রয় নিয়েছিল তার বেশিরভাগই ছিল হিন্দু ধর্মাবলম্বী। দেশ স্বাধীন হবার পর যার একটা বড় অংশই আর বাংলাদেশে ফিরে আসেনি । লক্ষ্য করলে দেখা যাবে স্বাধীনতা যুদ্ধের সময় বা যুদ্ধের আগে-পরে যে পরিমাণ হিন্দু দেশ ত্যাগ করেছিল তার থেকে অনেক বেশি হিন্দু দেশ ত্যাগ করেছে যুদ্ধ পরবর্তী ‘বাংলাদেশ’ থেকে ।

আজকের দিনে স্বাধীন বাংলাদেশে হিন্দু জনসংখ্যা জনসংখ্যার প্রায় ৮% । ‘৪৭ এ ভারত-পাকিস্তান জন্মের সময় যারা দেশ ত্যাগ করেনি,’৬৪ তে যারা দেশ ত্যাগ করেনি, ‘ ৭১ এর স্বাধীনতা যুদ্ধের পরেও যারা ভিটে মাটি ছেড়ে যায়নি,তাদেরই একটা বড় অংশ স্বাধীন বাংলার মাটি ছেড়ে গেছে আর ক্রমাগত যাচ্ছে দেশ স্বাধীন হবার পরে ।  ১৯৯১ আর ২০০১ সালে এর তীব্রতা দেখেছে পৃথিবী ।

প্রতি বছর খবরের কাগজে মূর্তি ভাঙ্গার সংবাদ পড়ে বাংলাদেশে শারদীয় দুর্গা পূজার আভাস পাওয়া যায়, তেমনি নির্বাচন পরবর্তী বাংলাদেশে হিন্দু সম্প্রদায়ের প্রতিনিয়ত খবরের কাগজের শিরোনাম হতে দেখে আঁচ করা যায় সংখ্যালঘু সম্প্রদায়ের দেশ ত্যাগ করার সময় এসেছে ! বাংলাদেশের স্বাধীনতার ৪৭ বছর পরেও ভারতের(-ন্ডিয়ার) দালাল এবং শুধুমাত্র ভারতের দালালই খুজে পাওয়া যায় ! বাংলাদেশের হিন্দুরাকেই শুধুমাত্র ভারতের দালাল বা ‘-ন্ডিয়ার’ দালাল হিসেবে গন্য !!

“যদি বাংলাদেশকে একটি ইসলামী প্রজাতন্ত্র হিসাবে ঘোষণা করা হয় তাহলে ভারতের আশ্চর্য হওয়ার কিছু নেই। যেদিন আমার সৈনিকরা বাংলাদেশকে মুক্ত করে সেদিনই আমি এ কথা উপলব্ধি করি। বাংলাদেশীদের কখনোই ভারতের প্রতি তেমন ভালবাসা ছিল না। আমি জানতাম ভারতের প্রতি তাদের ভালবাসা অস্থায়ী। অনুপ্রেরণা লাভের জন্য ভারতের দিকে না তাকিয়ে তারা মক্কা ও পাকিস্তানের দিকে দৃষ্টিপাত করবে।”
-ফিল্ড মার্শাল মানেক শ’
ভারতের সেনাবাহিনী প্রধান

(রেফ :স্টেটম্যান, ২৯ এপ্রিল ১৯৮৮)।

বাংলা দেশে এতো পাকিস্তানপন্থি, ক্ষমতাবান রাজাকার কিন্তু আদর্শবান মুক্তিযোদ্ধাদের আজকের অবস্থান কি ? মুক্তিযুদ্ধের চেতনার বাস কোথায়, আমজনতার হৃদয়ে নাকি সরকারি পেপারে ?