সব সময় একটা প্রশ্নর উত্তর খোঁজার চেস্টা করি যে মার্কসবাদ কি সমাজ তন্ত্র কি ?সেটা এতদিনে খুঁজে পেলাম।এক রুচিবান আপদমস্তক শিক্ষিত সংস্কৃতিপ্রেমিক উচ্চআয় করা কমরেডের বাসগৃহে (দুটি সুবিশাল ফ্ল্যাট)নামী দামী লেখক বাম দলের এর পেটুয়া মাইতি পদবীধারী গণনাট্য সঙ্গীত শিল্পী কে আসেনা ওখানে।বাড়ির( একটা সম্পূর্ণ ফ্লোরের ফ্ল্যাটে)প্রীতিটি কোণাতে  মার্কসবাদ সমাজতন্ত্র খুঁজতে লাগলাম।দামী মার্বেলের দামী টাইলসে,দামী কার্পেটে,দামী আসবাবপত্রে,পেল্লায় সনি কোম্পানীরা টিভিতে,লেপ্টে,শরীর চর্চার জিনিষে,মিউজিক সিস্টেমে,যদিও সঙ্গীতের প্রায় বাদ্যযন্ত্র উপস্থিতি দেখলাম,এক মাত্র পুত্র ইংরেজি স্কুলের পড়ুয়া।
খুঁজে চলেছি মার্কসবাদ কে সমাজতন্ত্রকেদামী চায়ের কাঁপে  দামী চা সঙ্গে হলদিরামের সুস্বাদু ঝুড়ি ভাঁজা।
হটাত্ চোঁখে পড়ল বইয়ের রেকে বাঙালি সব লেখকের বই উপস্থিত বাদ নেই দিদির লেখা বই ও ।
তারই পাশের রেকে দেখা গেল সেই বিখ্যাত বই ‘ ‘  দুনিয়া কাঁপানো দশ দিন’ ‘ সমেত মার্ক্সবাদী বই পত্র।
তারি মাঝে দেখা মিললো –সোভিয়েত সমাজতন্ত্র পতনের কারণ–নামে একটি বই অনুবাদ করা NBA প্রকাশনের বই। বেশ কয়েকটি পাতা তে চোঁখ বুলালাম।
পরক্ষণে চোঁখ পড়ল একদম পাশের সুসজ্জিত রেকে নামী দামী বিদেশী ব্র্যান্ডের মদের বোতলের দিকে নানা বাহারের মদের বোতল। চোঁখ থমকে গেলো মনে প্রশ্ন উঁকি মারছে।সঙ্গে থাকা বন্ধুদ্বয় ডাক দিলো অনেক হয়েছে অনেক দেখেছিস বই এবার চল।
আসছি বলে বাম দম্পতির সম্পূর্ণ আভিজাত্য মোড়কে ঢাকা ফ্ল্যাট থেকে লিফ্ট দিয়ে নিচে নাবতে নাবতে মনে এই উত্তর টা এলো —আভিজাত্যর জৌলুসে ও রোমান্টিসিজমে  ভরা এক উচ্চ আখ্যাংকার নাম বোধয় মার্কসবাদ ও সমাজতন্ত্র, গরীব সর্বহারারা মানুষ জনেরা নিমিত্ত মাত্র এই মতবাদের কাছে।

জয় মার্কসবাদ/মার্কসবাদীদের জয়
জয় সমাজতন্ত্রের জয় ।
বন্দেমার্ক্সম