Thursday, September 16, 2021
Home Bangla Blog যে সকল হিন্দুরা ভাবেন যে হিন্দুধর্মআদি অনন্ত কাল থেকে বিরাজমানআছে ও ভবিষ্যতেও...

যে সকল হিন্দুরা ভাবেন যে হিন্দুধর্মআদি অনন্ত কাল থেকে বিরাজমানআছে ও ভবিষ্যতেও থাকবে এবং হিন্দুধর্মকে কেউ আঘাত ও ধ্বংস করতেপারবেনা ।আমি মনে করি তারা একএকটি আস্ত গোবেট ও মহামূর্খ ।

যে সকল হিন্দুরা ভাবেন যে হিন্দুধর্ম অনন্ত কাল থেকে বিরাজমান ও ভবিষ্যতেও থাকবে এবং হিন্দু
ধর্মকে কেউ আঘাত ও ধ্বংস করতে পারবেনা ।আমি মনে করি তারা এক একটি আস্ত গোবেট ও মহামূর্খ । কখনো ভেবেছেন আফগানিস্হানের হিন্দুরা কোথায় গেল ! ‘ কাবুল ‘ শহর টা শ্রীরামের পুত্র কুশ বানিয়েছিলেন , আজ সেখানে একটা মন্দির পর্যন্ত নেই । ‘ গান্ধার ‘ যার বিবরণ মহাভারতে পাওয়া
যায় । যেখানকার রাণী ছিলেন গান্ধারী । আজ সেই স্হানের নাম কান্দাহার । এবং সেখানে আজ আর
কোন হিন্দু বেঁচে নেই ।


‘ কম্বোডিয়া’ যেখানের রাজা ছিলিন
সূর্য্যদেব বর্মন যিনি পৃথিবীর সবথেকে
বড় মন্দির ‘ আঙ্কোরভাট ‘ নির্মান
করিয়েছিলেন । আজ সেখানেও কোন
হিন্দু নেই ।
‘ বালিদ্বীপে ‘ ২০ বছর পূর্বেও ১০০%
হিন্দুর দেখা পাওয়া যেত । আর আজ
সেখানে মাত্র ৮৩% অবশিষ্ট রয়েছে ।
কাশ্মীরে ২০ বছর পূর্বেও ৫০% হিন্দু ছিল
আর আজ মাত্র ৩% থেকে ৪% ।
কেরলে মাত্র দশ বছর পূর্বেও ৬০% হিন্দু
ছিল এখন মাত্র ২০% ।
নর্থ ইস্ট রাজ্যগুলিতেও আজ ভয়ংকর
হারে হিন্দু জনসংখ্যা কমে আসছে । এর
মধ্যে আমাদের পশ্চিমবাংলাও আছে ।
প্রতিবেশি রাষ্ট্রের লাগাতার
অনুপ্রবেশ বাংলাদেশ সীমান্তবর্তী
ভারতের সবকটি রাজ্যের জনবিন্যাস
বদলে দিয়েছে ।
১৫৬৯ সাল পর্যন্ত ইরানের পূর্বনাম ছিল
পারস্য । যেখানে একটিও মুসলিম বসতি
ছিলনা , শুধুমাত্র পারসিকরাই থাকতেন ।
যখন পারস্যের উপর মুসলিমরা আক্রমন
চালাতো তখন পারস্যের বয়স্ক ব্যক্তিরা
তাদের তরুণ যুবকদের বলতেন , আমাদের
কেউ হারাতে পারবেনা , কেউ ধ্বংস
করতে পারবেনা । কিন্তু ধীরে ধীরে
পারস্য ইরাণে পরিণত হল পারসিকদের লুঠ
করা হল তাদের নারীরা হল গণিমতের
মাল পুরুষদের নৃশংসভাবে খুন করা হল
অবশিষ্টদের ধর্মান্তরিত করা হল ।
অল্পসংখ্যক কিছু বেঁচে যাওয়া
পারস্যের অধিবাসী যারা
নৌকাযাত্রা করে ভারতে পালিয়ে
এসেছিল তাদেরই হাতেগোনা
কিছুজনের আজ গুজরাতে দেখতে
পাওয়া যায় ।
……. সদা সর্বদা শান্তিচাই শান্তিচাই
করে শান্তির ভিক্ষাকরা হিন্দুদের এবার
ভাববার সময় এসেছে । কারণ নিকট
ভবিষ্যতে সমগ্র হিন্দু জনজাতি চরম
সংকটের সম্মুখীন হতে চলেছে । এই
সংকট অস্তিত্বের সংকট ।
…..সমগ্র বিশ্বে খ্রীষ্টান ধর্ম অধ্যুষিত
দেশ হল ৮০ টি আর ইসলামিক দেশ হল ৫৬
টি । কিন্তু একটিও হিন্দু রাষ্ট্র নেই । হিন্দু
সংখ্যগরিষ্ট দুটি দেশ আছে একটি হল
আমাদের মাতৃভূমি ভারত অপরটি হল
ভারতের প্রতিবেশি নেপাল । এটা
আমাদের দূর্ভাগ্য।

RELATED ARTICLES

২৬/১১-র মুম্বই হামলার ধাঁচেই নাশকতার ছক: দিল্লি, মুম্বাই, ইউপি তে সিরিয়াল বিস্ফোরণের ঘৃণ্য চক্রান্ত ব্যর্থ করল প্রশাসন!

২৬/১১-র মুম্বই হামলার ধাঁচেই নাশকতার ছক: দিল্লি, মুম্বাই, ইউপি তে সিরিয়াল বিস্ফোরণের ঘৃণ্য চক্রান্ত ব্যর্থ করল প্রশাসন! সবচেয়ে বড় কথা হল আইএসআইয়ের এই সম্পূর্ণ...

আশ্রয় দেওয়া দেশগুলোতে জিহাদ একটি বড় চ্যালেঞ্জ হয়ে ওঠছে।

শরণার্থী : আশ্রয় দেওয়া দেশগুলোতে ইসলামী মৌলবাদিদের জিহাদ একটি বড় চ্যালেঞ্জ হয়ে ওঠছে।নিউজিল্যান্ড ইসলামী জিহাদিদের ছুরি হামলা, হামলাকারী একজন শ্রীলংকান মুসলিম শরণার্থী। অন্য দিকে জার্মানিতে...

কেরালা ভারতে অশান্তির নীরব রাজধানী হয়ে উঠছে। আগামী ১০ বছরের মধ্যে কেরালা পরবর্তী কাশ্মীর হয়ে যাবে।

কেরালা ভারতে অশান্তির নীরব রাজধানী হয়ে উঠছে। আগামী ১০ বছরের মধ্যে কেরালা পরবর্তী কাশ্মীর হয়ে যাবে। কেরালার হিন্দুদের কাছ থেকে ভারতের অনেক কিছু শেখার আছে। কাশ্মীরি...

Most Popular

২৬/১১-র মুম্বই হামলার ধাঁচেই নাশকতার ছক: দিল্লি, মুম্বাই, ইউপি তে সিরিয়াল বিস্ফোরণের ঘৃণ্য চক্রান্ত ব্যর্থ করল প্রশাসন!

২৬/১১-র মুম্বই হামলার ধাঁচেই নাশকতার ছক: দিল্লি, মুম্বাই, ইউপি তে সিরিয়াল বিস্ফোরণের ঘৃণ্য চক্রান্ত ব্যর্থ করল প্রশাসন! সবচেয়ে বড় কথা হল আইএসআইয়ের এই সম্পূর্ণ...

আশ্রয় দেওয়া দেশগুলোতে জিহাদ একটি বড় চ্যালেঞ্জ হয়ে ওঠছে।

শরণার্থী : আশ্রয় দেওয়া দেশগুলোতে ইসলামী মৌলবাদিদের জিহাদ একটি বড় চ্যালেঞ্জ হয়ে ওঠছে।নিউজিল্যান্ড ইসলামী জিহাদিদের ছুরি হামলা, হামলাকারী একজন শ্রীলংকান মুসলিম শরণার্থী। অন্য দিকে জার্মানিতে...

কেরালা ভারতে অশান্তির নীরব রাজধানী হয়ে উঠছে। আগামী ১০ বছরের মধ্যে কেরালা পরবর্তী কাশ্মীর হয়ে যাবে।

কেরালা ভারতে অশান্তির নীরব রাজধানী হয়ে উঠছে। আগামী ১০ বছরের মধ্যে কেরালা পরবর্তী কাশ্মীর হয়ে যাবে। কেরালার হিন্দুদের কাছ থেকে ভারতের অনেক কিছু শেখার আছে। কাশ্মীরি...

মন্দির-মসজিদ সহাবস্থান যতগুলি ধর্মীয় সহিষ্ণুতার বিজ্ঞাপন দেখেন তার সবগুলিই মন্দির আগে প্রতিষ্ঠা হয়েছে তারপর মসজিদ।

মন্দির-মসজিদ সহাবস্থান যতগুলি ধর্মীয় সহিষ্ণুতার বিজ্ঞাপন দেখেন তার সবগুলিই মন্দির আগে প্রতিষ্ঠা হয়েছে তারপর মসজিদ। সাম্প্রতিক সময়ে বাংলাদেশের চট্টগ্রামে একজন মুসলিম যুবক চন্দ্রনাথ ধামে...

Recent Comments

%d bloggers like this: