Home Bangla Blog নীহাররঞ্জনের বাঙালির ইতিহাসকে বিদায় জানাতে কষ্ট হচ্ছে।।

নীহাররঞ্জনের বাঙালির ইতিহাসকে বিদায় জানাতে কষ্ট হচ্ছে।।

219

নীহাররঞ্জনের বাঙালির ইতিহাসকে বিদায় জানাতে কষ্ট হচ্ছে, প্রমোদ পালের আর্লি হিস্ট্রি অভ ইস্টার্ন ইন্ডিয়াকে বিদায় জানাতে কষ্ট হচ্ছে। রমেশচন্দ্র মজুমদারের হিস্ট্রি অভ এনশিয়েন্ট বেঙ্গলকে বিদায় জানাতে কষ্ট হচ্ছে, আরও অনেক অনেক এমন বই, যা বাঙালির উৎসের ইতিহাস জানায়, তাদের সবাইকে এইবার ছাড়তে হবে। আদিপর্ব শেষে মধ্যপর্বে প্রবেশ করলাম এইবার, বাঙালির সাংস্কৃতিক ও বৌদ্ধিক ইতিহাসের পরবর্তী সংখ্যায় খিলজি আগমনের পরবর্তী গৌড়বঙ্গ নিয়ে লিখতে চলেছি।

সেনদের ছেড়ে যেতে কষ্ট হচ্ছে। ভালো থাকুন বল্লাল, ভালো থাকুন বিজয়। ভালো থাকুন ধর্মপাল, ভালো থাকুন দেবপাল। ভালো থাকুন শশাঙ্ক, ভালো থেকো গঙ্গারিডাই। পুণ্ড্র ভালো থেকো, তাম্রলিপ্ত ভালো থেকো।

প্রাচীন শেকড়, ভালো থেকো। আমি বিদায় নিচ্ছি, আমায় এখন এই জাতির সবথেকে ভয়াবহ দুঃসময়ের দিনলিপি প্রস্তুত করতে হবে। 

প্রথমেই প্রশ্ন করি রাজা লক্ষ্মণসেন, বলুন তো, ঠিক কি হয়েছিল? গর্গযবনান্বয়প্রলয়কালরুদ্র কেশবসেন আর বিশ্বরূপসেন, আপনারাও আসুন, আপনাদেরও আহ্বান করছি। পরমসৌগত গৌড়েশ্বর মধুসেন, আপনিই কি শেষ বাঙালি সম্রাট, না পোড়ারাজার সেই কিংবদন্তীর দ্বিতীয় বল্লালসেন, যিনি বায়াদুম্ব (বাবা আদম) কে পরাজিত করার পর নিয়তির পরিহাসে স্বজনদের অগ্নিব্রত আর তার পরে পোড়া ধ্বংসস্তূপ প্রত্যক্ষ করেছিলেন নিদারুণ শোকে, কারণ তারা ভুল তথ্য পেয়েছিল, সংবাদ পেয়েছিল যে ম্লেচ্ছদের হাতে দ্বিতীয় বল্লালের মৃত্যু হয়েছে?

আজ রাতে, একে একে হেঁটে আসছেন ওরা, ছায়াপথ ধরে হেঁটে আসছেন। মৃতদের আহ্বান করেছি আমি, আজ রাতে আমি মহাকালের পর্দা সরিয়ে সেই আশ্চর্য হেঁয়ালির উত্তর খুঁজব প্রত্যেক প্রত্যক্ষদর্শীর কাছে। কি হয়েছিল ঠিক? বিশ্বাসঘাতকতা? হস্তিসৈন্যের এবং অশ্বারোহী সৈন্যের অভাব? নেতৃত্বের দুর্বলতা? অর্থাভাব, বৈদেশিক বাণিজ্যে ধ্বস নামা? ব্রাহ্মণ ও বৌদ্ধের লড়াই?

মৃত রাজারা, উত্তর দিন। উত্তর দিন সৈন্যেরা। নাগরিক উত্তর দাও, গ্রামীন উত্তর দাও। বৈদ্য উত্তর দাও, কৈবর্ত উত্তর দাও। কায়স্থ উত্তর দাও, পৌণ্ড্র উত্তর দাও। ব্রাহ্মণ উত্তর দাও, চণ্ডাল উত্তর দাও। কি হয়েছিল? একটি ভারতবিজয়ী জাতি এভাবে কেন বিধ্বস্ত হয়ে গেল? উত্তর দাও, মহাকাল, উত্তর দাও।

%d bloggers like this: