.সত্যিই বাংলায় ভালো জ্ঞান না থাকলে এইরকম রসবোধ সৃষ্টি করা যায় না!
.
.
বাংলা ক্লাশে বাগধারার উদাহরন দিতে বলা হয়েছিল। খাতা দেখার পর নিয়ম মেনে নেড়ুদা শূন্য পেয়েছিল। পড়ে দেখুন, সত্যিই কী নেড়ুদার শূন্য পাওয়া উচিত ছিল ?

1. আহ্লাদে আটখানা –
নেড়ুদার উত্তর : প্রচণ্ড খিদে পেয়েছিল, তাই এক হাঁড়ি রসগোল্লা দেখে আহ্লাদে আটখানা খেয়ে ফেললাম।

2. উনিশ বিশ –
নেড়ুদার উত্তর : আমরা ক্লাস ওয়ানে সতেরো আঠারো উনিশ বিশ পর্যন্ত গুনতে শিখেছিলাম।

3. সাবধানের মার নেই –
নেড়ুদার উত্তর : সাবধানের বাবার মুখ ভর্তি দাড়ি-গোঁফ আছে কিন্তু সাবধানের মার নেই।

4. অরণ্যে রোদন –
নেড়ুদার উত্তর : বাঘটা ছুটতে ছুটতে হোঁচট খেয়ে পড়ে গিয়ে হাঁটুতে বেজায় চোট পেয়ে অরণ্যে রোদন করতে লাগল।

5. ভাঁড়ে মা ভবানী –
নেড়ুদার উত্তর : গত বছর ভবানী পুজোর সময়ে ভবানীপুরের ভুবন সংঘ চার হাজার চায়ের ভাঁড়ে মা ভবানী বানিয়েছিল।

6. উলুবনে মুক্তো –
নেড়ুদার উত্তর : উলুবনে মুক্তো ছড়ালে মালা বানাবে কী দিয়ে, ভাবতে ভাবতে দিন শেষ হয়ে যাবে।

7. উত্তম মধ্যম –
নেড়ুদার উত্তর : সুচিত্রা দেবীকে নিয়ে উত্তমকুমার গাড়ি করে দমদমে বেড়াতে গিয়েছিলেন, তারপর সুচিত্রা দেবীর অনুরোধে উত্তম মধ্যম গ্রাম গেলেন।

8. আলালের ঘরে দুলাল –
নেড়ুদার উত্তর : আলালের ঘরে দুলাল গিয়ে বলল, “মাসিমা, আলাল আছে ? “

9. মাঠে মারা গেলো –
নেড়ুদার উত্তর : খেলার উত্তেজনা সইতে না পেরে মনোজবাবুর বউমা প্রতিভা হার্ট অ্যাটাকে মাঠে মারা গেলো

নিয়মের গেরোয় নেড়ুদার প্রতিভা মাঠে মারা গেল !!!

…………..
.
সুপ্রভাত। ভালো থাকুন সবাই।

আমার লেখা নয়। হোয়াটস এপে পাওয়া। তবে অসাধারণ! যিনি লিখেছেন তার রসবোধ অনেক উচ্চমানের!!