সেদিন এক বরিষ্ঠ এবং সম্মাননীয় বুদ্ধিজীবীর সঙ্গে কথা হচ্ছিলো —
আই এস জঙ্গীগোষ্ঠীর (ইসলামিষ্ট স্টেট)প্রসঙ্গ আসতেই উনি খুব আত্মবিশ্বাসের সঙ্গে জানালেন “আই এস টাই এস বলে কিছু নেই , সব আমেরিকার ষড়যন্ত্র, ইজারায়েলও আছে এর মধ্যে, ওরাই সব করাচ্ছে ।”
ব্যাস, যা বোঝার বুঝে গেলাম।
বললাম, “ঠিক বলেছেন , আমিও একমত “।
দাদা, শুধু কী এখন ? সেই কবে থেকে ওরা মানে (মার্কিনীরা) এসব করছে ভাবুন তো ?
দেশে দেশে নাক গলানো আর রক্ত বন্যা বইয়ে দেওয়া –এই তো ওদের কাজ । চিলি, সোমালিয়া, এল সাল্ভাদোর, নিকারাগুয়া, ভিয়েতনাম –গুণে শেষ করা যাবে না ।
CIA এর কুকীর্তি কে না জানে বলুন ?
বিন লাদেনের মত একটা সহজ সরল, গোবেচারা লোক , তার মন পর্যন্ত বিষিয়ে দিলো ? অস্ত্র দিয়ে ট্রেনিং দিয়ে সন্ত্রাসবাদী বানিয়ে ফেললো ?
“হ্যাঁ হ্যাঁ ভাই , তাই তো বলছি ! বাহ তুমি তো ভালোই খবর রাখো ?”
“হে হে , তা রাখি একটু , ওদের মত নরপিশাচ আর হয় নাকি দাদা ? লোকটার মানে লাদেনটার এক বিন্দু ইচ্ছে ছিলো না জানেন ? ছিঃ ! মানুষ মারবো ! মহা হারামের কাজ ।
তবু ওঁকে স্টিংগার মিশাইল দিয়ে দিলো ? ছিঃ ছিঃ !
কই হরিপদ কেরানিকে তো দিলো না ? নিধু বটব্যালকেও দেয় নি , শুধু ওসামা নামের নিরীহ মানুষটাকেই টেররিষ্ট বানিয়ে দিলো ?
ঘেন্না ! ঘেন্না ! ঘেন্না ! এই না হলে জঘন্য সাম্রাজ্যবাদী দেশ।

আরে বাবা টেরোরিস্ট বানাবি যখন, সবাইকে বানা ! অনিল, সুনীল, তাকামাসু, হলস্কি, রামু, ভীমু এদের কী ইচ্ছে করে না? ওরাও কী চায় না AK 47, Stinger Missile নিয়ে দুর্দান্ত টেররিস্ট হবে?

আপনিই বলুন দাদা , ওদেরও কি ইচ্ছে করে না মরার পর ৭২ টা ইয়ে মানে সুন্দরী—– তা না শুধু বেছে বেছে ওসামা, আটা, হাফিজ, মাসুদ ? লজ্জা ! লজ্জা ! লজ্জা !
“বাহ, ভাই বাহ , বয়স কম হলেও তুমি দেখছি বেশ ভালোই পড়াশোনা করেছো ! ঠিক তাই , আমেরিকার মত জঘন্য সাম্রাজ্যবাদী দেশ করতে পারে না এমন কোন কাজ নেই !”
“হ্যাঁ দাদা , এই যে সুলতান মামুদ, চেঙ্গিস খান, তৈমুর লং—সব তো ওদেরই তৈরি ! অথচ দেখুন বাইরে থেকে কিচ্ছুটি বোঝার উপায় নেই।”

ভদ্রলোক এবার তাকালেন। একবার উপরে, একবার নিচে , আর একবার কোথায় যেন তাকাতে যাচ্ছিলেন কিন্তু মাঝপথে মুলতুবি করে দিলেন। 😀
“সুলতান মামুদ ? কিন্তু ভাই সেই সময় তো আমেরিকার জন্মই হয়নি ?”
“তাতে কী দাদা , টারমিনেটর দেখেন নি ? অনেকগুলো সিকোয়েল ? টারমিনেটর-২, টারমিনেটর-৩ , আর্নল্ড সোয়াজেনেগার , কী চেহারা লোকটার ! দেখেন নি ?”
“হ্যাঁ, একটা মনে হয় দেখেছিলুম। ”
“তবে ? দেখলেন তো ওরা কত খতরনাক ? ভবিষ্যৎ থেকেও লোক, থুড়ি রোবট পাঠায় ! কেমন বুক আর বাইসেপস ফুলিয়ে বলে – I’m From Future ! আমার দৃঢ় বিশ্বাস মামুদ, চেঙ্গিস খান, তৈমুর লং—সব কটাকে ওরাই পাঠিয়েছিলো , উপর উপর দেখলে হবে ?
গভীরে, গভীরে, গভীরে, আরও গভীরে, আরও অনেক অনেক গভীরে যাবার শিক্ষা তো আপনাদের কাছেই পেয়েছি দাদা ।  :p :p :p

(সংগৃহীত)