“সুলতানী আমলে ধংসের খতিয়ান”
ডাঃ মৃনাল কান্তি দেবনাথ

যারা ইতিহাস নিয়ে একটু পড়াশুনা করেছেন বা করেন তারা ঐতিহাসিক রিচার্ড ইটনের নাম নিশ্চয়ই শুনেছেন বা পড়েছেন। যারা রোমিলা থাপার আর ইরফান হাবিবের চোখ দিয়ে ভারতীয় ইতিহাস দেখেন বা পড়েন, তারা এই ভদ্রলোকের লেখা পছন্দ অবশ্যই করবেন না। এই রিচার্ড ইটন একটি বই লিখেছিলেন নাম– Temple Desecration and Indo-Muslim States

সম্প্রতি আমার নতুন বই- “হিন্দু রাজাদের স্বাধীনতা রক্ষার সংগ্রাম-ইসলামিক জেহাদ ও ভারতী হিন্দু সমাজ’ বই লিখতে গিয়ে আমি ইটনের লেখা এই ইতিহাস পেলাম।

মোহম্মদ ঘোরী জয়চাঁদের (কনৌজের রাজা এবং পৃথ্বীরাজের মাসতুতো ভাই) পরামর্শ মতো রাতের অন্ধকারে সকাল ২ টোয় পৃথ্বীরাজের ঘুমন্ত সৈন্যদের ওপরে ঝাপিয়ে পড়ে। ফল- পৃথীরাজের পরাজয়। ঘোরী তার ক্রীতদাস কুতুবুদ্দিন আইবেক কে  বিজিত অঞ্চলের দ্বায়িত্ব দিয়ে কাবুলে চলে যায়। সেই শুরু হলো ভারতে ‘দাস বংশের’ রাজত্ব। ১১৯৩ সাল থেকে শুরু করে ১২৯০ সাল অবধি এই দাস বংশ যার অপর নাম ‘মামলুক’ বংশ ভারত শাসন করলো।

১২৯০ সাল থেকে শুরু হলো ইক্তিতিয়ার উদ্দিন মুহম্মাদ বিন বক্তিয়ার খলজীর খলজী বংশের শাসন। চললো১৩২০ সাল অবধি। খলজীদের থেকে শাসন ক্ষমতা ছিনিয়ে নিলো তুঘলকরা। শাসন করলো ১৩৯৫ সাল অবধি। মাঝখানে ৫ বছর চললো দুই বিরোধী গোষ্টির মারামারি। অবশেষে ‘সাইদ’ রা ক্ষমতায় এলো ১৪০০ সালে। ১৪৫৭ সালে এলো লোধীরা। ইব্রাহিম লোধী এই বংশের শেষ সুলতান। শুরু হলো “মোঘল শাসন”। যাদের কাছ থেকে ক্ষমতা এলো ‘ব্রিটিশ’ দের কাছে ১৭৫৭ সালে।
ভারতে জেহাদী আগ্রাসনের শুরু থেকেই শুরু হলো বৈদিক সভ্যতার সার্বিক ধংস যজ্ঞ। বৈদিক সভ্যতার ধারক এবং বাহক ছিলো গুরুকুল, জ্ঞানী তপস্বীদের আশ্রম, মঠ, মন্দির, বিশ্ববিদ্যালয়। একে একে সেই সব বিদ্যা শিক্ষার পীঠস্থল, আধ্যাত্মিক উপাসনাস্থলগুলি, ভীনদেশী, নিম্ন রুচি এবং অপরিশীলিত ভাব ধারার আগ্রসনের শিকার হলো। সুলতানী আমলে যার শুরু সেই তান্ডব চলেছিলো মুখল সম্রাট আউরংজেব অবধি। সুদীর্ঘ এক সময় ৭১২ সাল থেকে ১৭৫৭ সাল।

ঐতিহাসিক রিচার্ড ইটন শুধু মাত্র সুলতানী আমলে যে ধংসযজ্ঞ করা হয়েছিলো, বিশেষ করে আত্যাত্মিক মন্দির এবং জ্ঞান বিজ্ঞান মন্দির, তার বিবরন দিয়েছেন, আমি সেটাই হুবহু তুলে দিলাম। সোমনাথ মন্দির একবার নয়, বেশ কয়েকবার ধংস করা হয়।

Temple desecration during Delhi Sultanate period, a list prepared by Richard Eaton in Temple Desecration and Indo-Muslim States

1.Muhammad Ghori, Qutb al-Din Aibak —Mamluk Dynasty— 1193-1290 AD

Ajmer, Samana, Kuhram, Delhi, Kol, Varanasi—–

Rajasthan, Punjab, Haryana, Uttar Pradesh

2.Muhammad bin Bakhtiyar Khalji, Shams ud-Din Iltumish, Jalal ud-Din Firuz Khalji, Ala ud-Din Khalji, Malik Kafur Mamluk and Khalji—— 1290-1320 AD

Nalanda, Odantapuri, Vikramashila, Bhilsa, Ujjain, Jhain, Vijapur, Devagiri, Somnath,

Chidambaram, Madurai
Bihar, Madhya Pradesh, Rajasthan, Gujarat, Maharashtra, Tamil Nadu

3. Tughlaq Dynasty—

Ulugh Khan, Firuz Shah Tughlaq, Nahar, Muzaffar Khan Khalji and Tughlaq 1320-1395 AD

Somnath, Warangal, Bodhan, Pillalamarri, Puri, Sainthali, Idar, Somnath

Gujarat, Telangana, Orissa, Haryana

4. Sayyid Dynasty—

Sikandar, Muzaffar Shah, Ahmad Shah, Mahmud Sayyid ——–1400-1442 AD

Paraspur, Bijbehara, Tripuresvara, Idar, Diu, Manvi, Sidhpur, Delwara, Kumbhalmer Gujarat, Rajasthan.

4 Lodhi Dynasty—

Suhrab, Begdha, Bahmani, Khalil Shah, Khawwas Khan, Sikandar Lodi, Ibrahim Lodi Lodi —-1457-1518 AD—

Mandalgarh, Malan, Dwarka, Kondapalle, Kanchi, Amod, Nagarkot, Utgir, Narwar, Gwalior

Rajasthan, Gujarat, Himachal Pradesh, Madhya Pradesh

সুলতানী আমলের বর্বর সুলতানদের অত্যাচারের কাহিনী এক নিদারুন মর্মব্যথার কথা। এর বিরুদ্ধে হিন্দু বিদ্রোহ হয় এবং বিজয়নগর সা্ম্রাজ্যের সুচনা হয়। কিন্তু সুলতানী বর্বরতা সেই হিন্দু  বিজয়নগরকে এক ধংসস্তুপে পরিনত করে। ‘হামপি’ আজো সেই ধংসের করুন নিদর্শন নিয়ে চুপ করে আছে।