আকবর দ্যা গ্রেট (প্রকৃত ইতিহাস) : [পঞ্চম পর্ব]
(শেয়ার অবশ্যই করবেন)
পূর্বের পর…
বিশ্বাসঘাতক অকৃতজ্ঞ আকবরঃ
…মুঘল সেনাপতি বৈরাম খাঁ ১৫৬১ সালের ৩১ জানুয়ারি মক্কা যাবার পথে গুজরাটের পাতনে খুন হন।
…শিয়া মুসলিম বৈরাম খাঁর জন্ম আফগানিস্তানের বাদাখশানে ১৫০১ সালে।…তিনি ছিলেন ‘কারা ফনলু’ গোত্রের ‘বাহারলু’ বংশের মানুষ।…এই কারা ফনলু গোত্রটি কয়েক দশক পশ্চিম পারস্য শাসন করে।…বৈরাম খাঁর পূর্বপুরুষরা সম্রাট বাবরের খেদমতে নিযুক্ত ছিল।…মাত্র ১৬ বছর বয়সে বৈরাম মুঘল সাম্রাজ্যে যোগ দেন বাবরের সময়।…ভারতবর্ষে মুঘলদের যে জয়জয়কার সূচিত তাতে প্রধান ভূমিকা ছিল তার।…সম্রাট হুমায়ুনের আমলে তিনি বেনারস, গুজরাট, বাংলায় সফল অভিযানে অংশ নেন।…হুমায়ুন যখন পারস্যে নির্বাসিত ছিলেন তখন বৈরাম কান্দাহার পুনরুদ্ধারে সহায়তা করেন এবং নয় বছর কান্দাহারের শাসকের দায়িত্ব পালন করেন।
…আকবর যখন সিংহাসনে আরোহণ করেন তখন ভারতের রাজনৈতিক অবস্থা ছিল অত্যন্ত বিশৃঙ্খল।…হুমায়ুন তাঁর মৃত্যুর আগে কেবল পাঞ্জাব, আগ্রা ও দিল্লি উদ্ধার করে গিয়েছিলেন, কিন্তু সাম্রাজ্য সুসংহত করে যেতে পারেন নি।…আকবরের অভিভাবক বৈরাম খাঁর সহযোগিতায় আকবর সব বিদ্রোহ কঠোর হস্তে দমন করেন।…বৈরাম খাঁ গুজরাট, বাংলা, বিহার, কাশ্মীর ও কাবুল জয় করার পর তিনি দাক্ষিণাত্য আক্রমণ করেন।…আকবরের রাজ্য বকলমে বৈরাম খাঁর রাজ্য উত্তরে হিমালয়, পশ্চিমে কান্দাহার, দক্ষিণে বেরার এবং পূর্বে বঙ্গদেশ পর্যন্ত বিস্তৃত ছিল।
…আকবরের শাসনামলেই ঐতিহাসিক দ্বিতীয় পানিপথের যুদ্ধ সংঘটিত হয়। আফগান নেতা আদিল শাহের সেনাপতি হিমু অক্টোবর ১৫৫৬ সালে দিল্লি আক্রমণ করলে সেনাপতি বৈরাম খার নেতৃত্বে মুঘল সৈন্যরা পানিপথের প্রান্তরে হিমুকে পরাজিত ও জবাই করেন।
…আকবরের বয়স যখন অল্প তখনই সম্রাট হুমায়ুন তার মৃত্যুর আগে তার প্রিয় সেনাপ্রধান বৈরাম খাঁ’কে রাজ্যের ভার দিয়ে যান এবং বলেন যতদিন না আকবর রাজ্যের ভার গ্রহণের যোগ্য হচ্ছে ততদিন পর্যন্ত বৈরাম খাঁ এই দিল্লির শাসনকার্য পরিচালনা করবেন।…আকবর দায়িত্ব নিয়ে সিংহাসনে বসার পরপরই বৈরাম খাঁকে বলেন বিশ্রাম নিতে মক্কায় চলে যাওয়ার জন্য।…আর এই মক্কা যাবার পথেই পৃথিবীর সবচেয়ে বড় অকৃতজ্ঞ বিশ্বাসঘাতক আকবরের নির্দেশে ৩১ শে জানুয়ারী ১৫৬১ বৈরাম খাঁকে হত্যা করা হয়।
…তার হত্যার পর আকবর বৈরাম খাঁর বিবি সালিমা বেগম সুলতানাকে জোর করে বিয়ে করেন, যিনি ছিলেন আকবরের পিতা হুমায়ূনের বোন গুলরুখ বেগমের মেয়ে, অর্থাৎ আকবরের পিসতুতো বোন।
…ইতিহাসবিদরা দাবী করেন আকবরের সাথে বৈরাম খাঁর মতানৈক্য হওয়ার কারনে তাকে বাধ্য করা হয় মক্কার উদ্দেশ্যে গমন করার জন্য এবং পথিমধ্যেই আকবরের কিছু গুপ্ত ঘাতক দল তাকে আক্রমণ করে।
নবী মহাম্মদের অনুসারী নৃশংস খুনি জেহাদি আকবরঃ
…বলা হয়ে থাকে আকবর নাকি ভারতবর্ষের সবচেয়ে দয়ালু শাসক ছিলেন।…১৪ বছর বয়সে তিনি তার বাপ দাদার পূর্ব পুরুষের ধারা অনুযায়ী দয়াশীলতার নমুনা দেখিয়েছিলেন।…নভেম্বর ৬, ১৫৫৬ সালে হিমুর সাথে পানিপথের যুদ্ধে তিনি ছিলেন।…মুঘলরা বড় ধরনের পরাজয়ের সম্মুখীন ছিল কিন্তু হঠাৎ করে একটি তীর হিমুর চোখে বিদ্ধ হয়।…তিনি অজ্ঞান হয়ে পরেন এবং তার সৈন্যরা আসন্ন পরাজয় ধারণা করে পালিয়ে যেতে শুরু করে।

(চলবে)

( – Writankar Das – )