জিহাদীদের দালাল ইতিহাসবিদদের কাছা খুলে দিন….

Spread the love

জিহাদীদের দালাল ইতিহাসবিদদের কাছা খুলে দিন….

তাজমহল নিয়ে বিজেপি বিধায়ক সঙ্গীত  সোমের বক্তব্য নিয়ে দেশজুড়ে বিতর্ক চলছে কিন্তু কোনো ধর্মনিরপেক্ষ হিন্দুত্ববিরোধী ব্যাক্তিদের সাহস নেই আমার কতগুলি ক্ষুদ্র প্রশ্নের উত্তর দেওয়ার….

ইতিহাসে লেখা আছে তাজমহল নাকি শাজাহান তৈরী করেছিলেন তার পত্মী (গনিমতের মাল) মুমতাজের স্মৃতি রক্ষার্থে । আচ্ছা একটা সহজ প্রশ্নের উত্তর দিন তো, যদি আপনি নিজের বৌকে নিজের প্রাণের থেকেও বেশী ভালোবাসেন তাহলে কি আপনি আরোও পাঁচটা নারীর সাথে শুতে যাবেন?
ধরুন আপনার সবচেয়ে প্রিয় স্ত্রী মারা গেল তারপরেই কি আপনি আপনার শালীকে বিয়ে করবেন?

ওসব শাজাহান-মুমতাজের প্রেম ভালোবাসার নাটক বাদ দিন তো মশাই, আরবের তেলের টাকা খেয়ে ভুয়ো ইতিহাস লিখে হিন্দুদের সর্বনাশ করা বন্ধ করুন দেখি এবার…
শাজাহানের যদি মুমতাজের প্রতি এতোই প্রেম তাহলে নিজের প্রাসাদে বেশ্যাখানা কি ছিঁড়তে করেছিল একটু উত্তর দেবেন কেউ?
যে লোকটা পালা করে একের পর এক মহিলার সাথে সহবাস করত তার এমনকি হল যে তাজমহলটা মুমতাজের জন্যই শুধু তৈরী করল?
নাকি মুমতাজ ভালো ব্লো-জব দিত?

আচ্ছা, মোগলরা তো আরব থেকে ভারতে এসেছিল তা এতোই যদি মোগলরা শিল্প-সংস্কৃতি প্রিয় মানুষ ছিল তাহলে আরবে কোনো ঐতিহাসিক স্থাপত্য নেই কেন?
নাকি ভারতে এসেই মোগলদের নুনুভূতিতে স্থাপত্য জেগে উঠেছিল?

ইতিহাসে যা লেখা আছে তা সব ভুল, হিন্দুদের ইতিহাসকে ধংস করার জন্য চক্রান্ত করেছে সবাই কারন যে জাতির ইতিহাসকে ধংস  করা যায় সেই জাতিকেও অনায়াসে ধংস করা যায়….

শালারা মিথ্যা লেখার জায়গা পায়নি, মোদী সরকার ২০১৪ থেকে বড় বড় রোলার, মেশিন লাগিয়ে আসানসোল থেকে পানাগড় অবধি সিক্স লেন রোডটা কমপ্লিট করতে পারল না, আর ১৫৪০ সাল থেকে ১৫৪৫ সাল এই ৫ বছরেই শেরশাহ নাকি কাবুল থেকে কলকাতা জিটি রোড তৈরী করে দিয়েছিলেন ।
বলি রোড রোলার, কি তখন রোমিলা থাপারের বাপের কোম্পানির ছিল?

নালন্দা বিশ্ববিদ্যালয়, সোমনাথ মন্দির ধংস করল যারা তারা নাকি স্থাপত্য তৈরী করেছে ভারতবর্ষে?
কুতুবমিনার গিয়ে ভালো করে চোখটা ফেঁড়ে দেখে আসবেন গনেশ, বুদ্ধের মুর্তি ভাঙ্গা অবস্থাতে আছে আবার বলছেন কুতুবমিনার নাকি কুতুবউদ্দিন আইবকের সৃষ্টি?

আমাদের পৃথ্বীরাজ চৌহান, অশোক, চন্দ্রগুপ্তরা তো ত্রিপল টাঙিয়ে থাকত তাই তাদের কোনো মহল ভারতে নেই মনে হয়, আর যারা মরুভূমিতে উটের মুতের উপর শুয়ে থাকত তারা ভারতে এসে আর্কিটেক ডেকে মহল বানিয়ে নিল?

যে আরবের দস্যুরা আশে পাশে নারী নিয়ে শুয়ে থাকত, বংশ বিস্তার করত জনসংখ্যা বাড়াতে তারা স্থাপত্য তৈরী করবে এটা আশা করেন কি করে?

আমাদের পুর্বপুরুষ শিবাজী, রানাপ্রতাপরা ১৭ কেজি ওজনের তলোয়ার চালাতো, ওই তলোয়ার আকবর-বাবরদের হাতে তুলে দিলে পাতলা পায়খানা করে দিত হয়তো?

তাজমহল নাকি প্রেমের নিদর্শন? যে শালারা তার প্রেমিক-প্রেমিকাকে তাজমহল গিফট করিস ১৪ই ফেব্রুয়ারি তারা আরোও নচ্ছার….
ওরে, যার বাড়িতে বেশ্যাখানা থাকে, যে লোকের বৌকে তুলে এনে ধর্ষন করে, যে তার  বৌ মারা গেলে শালীকে বিয়ে করে, যে তাজমহল করতে নাকি শ্রমিকদের হাত কেটে ছিল তাকে তোরা ভালোবাসার প্রতীক বলবি? লজ্জা করেনা তোদের?
যদি প্রেমিক-প্রেমিকা কে ১৪ই ফেব্রুয়ারি গিফট করতেই হয় তাহলে “রামসেতু” গিফট কর কারন সীতার জন্য রাম সমুদ্রের উপর রাস্তা তৈরী করে রাবন বধ করে এসেছিল, প্রেম করলে রাম-সীতার মত পবিত্র প্রেম কর, শাজাহান-মুমতাজের নচ্ছার প্রেম করিস না….

আমাদের দেশের কিছু পাবলিক আছে যাদের ঠাকুরমার ঠাকুমাকে ধরে ধরে ধর্ষণ করে ধর্মান্তরিত করা হয়েছিল আজ তারা মাথাতে টুপি পরে নিজেদের আকবরের বংশধর ভাবছে, তারাই আজকে চিৎকার করছে তাজমহলটা আমাদের বলে, যদি এতোই তোদের প্রতিভা থাকত তাহলে ৫৭টা দেশে আরোও দুটো একটা তাজমহল থাকত নিশ্চয় ।

উটে করে চেপে এসে বেইমানি করে পৃথ্বীরাজ চৌহানের কাছে হাতে-পায়ে ধরে পিঠে ছুরি মেরে শাসকের আসনে বসে হিন্দুদের মন্দির, মহলগুলো নিজেদের বলে চালিয়ে দিয়েছে আর আমাদের দোগলা ইতিহাসবিদরাও লেজ না তুলেই লিঙ্গ নির্ধারণ করে দিয়েছে…..

সঙ্গীত সোম তো বিতর্কিত মন্তব্য করেছে, ক্ষমতা পেলে তাজমহলে শিবপুজা করে দেখাতাম…..

ধর্মনিরপেক্ষ হেরোডেটাসের বংশধরদের কাছে আমার প্রশ্ন গুলোর উত্তর কি আদৌও আছে?