নিউজিল্যান্ডের হামলায় যেভাবে প্রতিবাদ করেছে, সমবেদনা দেখিয়েছে, শ্রীলংকায় হামলায় ঠিক তার উল্টো প্রতিক্রিয়া দেখাচ্ছে!

Spread the love

ক’দিন আগে নিউজিল্যান্ডে উপাসনালয়  মসজিদে হামলায় ৪৯ জন মানুষের রক্তের দাগ শুকাতে না শুকাতেই শ্রীলংকায় ২৯০(সূত্র বিভিন্ন সংবাদমাধ্যম,  সংখ্যাটা আরো বেশি হবে)  জন নিরীহ মানুষের রক্ত খেয়ে নিলো রক্তপিপাসু জানোয়ারেরা! পৃথিবীতে দিন দিন মানুষরুপী জানোয়ারের সংখ্যা বেড়েই চলেছে।উগ্রবাদীদের কাছ থেকে ধর্মীয় স্হানগুলোও নিরাপদ নয়!

শ্রীলংকায় ২৯০ জনের মৃত্যুর সংবাদ অনলাইনে বিভিন্ন সংবাদমাধ্যম প্রকাশ করছে।সেসব পেজের কমেন্টবক্সের অনেকের কমেন্টস পড়ে নিজেকে মানুষ দাবী করতে ঘৃণা হচ্ছে। কারণ, আমার মতোই হাত-পা ওয়ালা কিছু মানুষরুপী জানোয়ার এই হামলায় খুশি হয়ে নগ্ন উল্লাস করছে!এই বিভৎস হামলাকে সমর্থন করছে!তরতাজা প্রানের বিভৎস অকাল মৃত্যু নিয়ে পরিহাস করছে!একে প্রতিশোধ হিসাবে বিবেচনা করছে!নিউজিল্যান্ডের হামলায় যেভাবে প্রতিবাদ করেছে, সমবেদনা দেখিয়েছে, শ্রীলংকায় হামলায় ঠিক তার উল্টো প্রতিক্রিয়া দেখাচ্ছে!নীরব থেকে হামলাকে মৌন সমর্থন দিচ্ছে! এসব দেখে বড় কষ্ট হয়,অনেক কষ্ট হয়…..

শ্রীলংকায় বোমা হামলায় আওয়ামীলীগ নেতা শেখ সেলিমের নাতি ছোট্ট শিশুটি নিহত হয়েছে।একশ্রেণীর গোবর সমৃদ্ধ মস্তিষ্কের অধিকারী জানোয়ারেরা ঐ ছোট্ট শিশুটি নিহত হওয়ার সংবাদে হাহা রিএ্যাক্ট দিচ্ছে! পরিহাস করে কমেন্ট করছে! বিদ্রুপাত্মক বিভিন্ন মন্তব্য করছে!আমরা দিন দিন এতোটাই অসভ্য হয়ে যাচ্ছি যে ছোট্ট অবুঝ শিশুটির মৃত্যু নিয়েও হিংস্র হায়েনার মতো আচরণ করছি!যার যায় সে-ই বুঝে হারানোর কি যন্ত্রণা।  ধিক্কার…ধিক্কার…ধিক্কার…

আজ খ্রিস্টান, বৌদ্ধ,সন্ত্রাসী  হামলায় মারা গেছে,কিছুদিন আগে প্রার্থনারত মুসলমান মারা গেছে,কখনো হিন্দু মারা গেছে,কখনো মারা গেছে অন্য ধর্মাবলম্বী।উগ্রবাদীদের প্রতিযোগিতার শিকার সব ধর্মের মানুষরাই।আজ আপনি অন্যের মৃত্যুতে হায়েনার মত উল্লাস করছেন,যেদিন আপনি আক্রান্ত হবেন সেদিন কি করবেন???? মনে রাখবেন প্রতিবেশীর বাড়িতে আগুন লেগেছে দেখে খুশি হবেন না,সেই আগুন নেভাতে চেষ্টা করুন।কারণ আপনার বাড়িতেও একদিন আগুন লাগতে পারে,সেই আগুনের উত্তাপ আপনি সইতে পারবেন না।তাই  মানুষের মতো আকৃতির অমানুষগুলোর প্রতি আবেদন- মানুষ হও,মানবিক হও।

শ্রীলংকায় বোমা হামলায় নিহতদের আত্মার শান্তি কামনা করছি।