এক সময় সানিয়ুর রহমান চমৎকার সব ভিডিও তৈরি করতো, খুব ভাল পোষ্ট্ দিতো। সানিয়ুর রহমানের সেই সব ভিডিও এবং পোস্ট দুই বাংলার মুমিন মুসলমানদের যথেষ্ট বিব্রত করতো। এর মধ্যে সানিয়ুর আস্তে আস্তে হিন্দু ধর্মের প্রতি আকৃষ্ট হতে লাগলো। যা বাংলাদেশি নাস্তিকদের শিরঃপীড়ার কারণ হয়ে দাঁড়ালো। ব্যস! শুরু হলো সানিয়ুরকে পচানো। আমরা সবাই জানি কাঁটা দিয়ে কাঁটা তোলাই উত্তম পন্থা, আর ভারতীয় অধিকাংশ হিন্দুদের টাকা দিয়ে দেশ বিরোধী বা নিজ ধর্ম বিরোধী যে কোন কাজ করিয়ে নেওয়া যায়। সুতরাং, হঠাৎ আমরা দেখলাম কিছু মুসলমানের বিষ্ঠাহারী ভারতীয় হিন্দু সানিয়ুরের কুৎসা প্রচারে আদা জল খেয়ে লেগে গেলো। সানিয়ুর মদ খায়, মা*বাজি করে, কোন এক হিন্দু মডেলের ঠিকানা ফেসবুকে দিয়ে দিয়েছে এবং তাতে মহাভারত অশুদ্ধ হয়ে গেছে, সানিয়ুর গোপনে হিন্দুদের বিরাট ক্ষতি করছে, সে ভিডিও তৈরি করে করে পশ্চিম বাংলার ফকিন্নি হিন্দুদের কাছ থেকে কয়েক হাজার কোটি কোটি রূপি হাতিয়ে নিয়ে পশ্চিম বাংলায় ইসলামিক জিহাদ শুরু করে দিয়েছে, নাকি সে দুবাই এ বুর্জ এ খালিফাতে ফ্লাট কিনেছে, ইত্যাদি ইত্যাদি। প্রচার চলতেই থাকলো….! অধিকাংশ উজবুক তা বিশ্বাসও করলো। সানিয়ুরের ভারতে থাকা ক্রমশ বিপন্ন হয়ে পড়লো এবং অবশেষে সানিয়ুর প্রকাশ্যে হিন্দু ধর্ম গ্রহণ করে এক হিন্দু নারীকে সেই নারীর পারিবারিক অনুমতিতে বিবাহ করলো। এবার ঐ মুসলমানদের মলাহারী হিন্দুরা এটাকে লাভ জিহাদ হিসাবে প্রচার দিতে লাগলো কিছুদিন ধরে। এইভাবে এক শ্রেণীর মুসলমানদের গু খাওয়া হিন্দুদের সক্রিয় ষড়যন্ত্রে সানিয়ুর ক্রমশ ফেসবুক থেকে বিদায় নিল। এখনো সে ভারতে আছে। হিন্দু ধর্ম পালন করছে শশুড়বাড়ির পূর্ণ ছত্রছায়ায়। সুন্দর ভাবে সুখী সংসার করছে। কিন্তু সে আর ফেসবুকে আসে না। আর সে হিন্দুদের সচেতন করতে ভিডিও বানায় না। সব ঠিক আছে, তবে কই কোন হিন্দুকে তো দেখালাম না সানিয়ুরের মতো ভিডিও বানাতে এবং পোস্ট দিতে…এটাই দুঃখ!

Rezaul Manik