পি সি রায়

নিজের বাসভবনে দেশীয় ভেষজ নিয়ে গবেষণার মাধ্যমে
তিনি তার গবেষণাকর্ম আরম্ভ করেন।
তার এই গবেষণাস্থল থেকেই পরবর্তীকালে বেঙ্গল কেমিক্যাল
কারখানার সৃষ্টি
হয়। যা ভারতবর্ষের
শিল্পায়নে উল্লেখযোগ্য ভূমিকা পালন করে। তাই বলা যায়
বিংশ শতাব্দীর গোড়ার দিকে ভারতীয়
উপমহাদেশের শিল্পায়নে তার ভূমিকা
অনস্বীকার্য।
১৮৯৫ সালে তিনি মারকিউরাস নাইট্রাইট আবিষ্কার
করেন যা
বিশ্বব্যাপী আলেড়ন
সৃষ্টি করে। এটি তার অন্যতম প্রধান আবিষ্কার। তিনি তার
সমগ্র জীবনে মোট ১২টি যৌগিক লবণ এবং ৫টি
থায়োএস্টার আবিষ্কার করেন। পি সি
রায় বাংলাদেশের খুলনা জেলার পাইকগাছা উপজেলার রাডুলি গ্রামে
আগস্ট ২
,১৮৬১ সালে জন্মগ্রহণ করেন। ছোটবেলা থেকেই
প্রফুল্লচন্দ্র অত্যন্ত তুখোড় এবং
প্রত্যুৎপন্নমতি ছিলেন। তিনি জগদীশ চন্দ্র বসুর সহকর্মী
ছিলেন।