Thursday, July 29, 2021
Home Bangla Blog "পরমাত্মা, জীবাত্মা, উর্ধোগতি, অধোগতি এবং জন্মান্তরের রহস্য"

"পরমাত্মা, জীবাত্মা, উর্ধোগতি, অধোগতি এবং জন্মান্তরের রহস্য"

“পরমাত্মা, জীবাত্মা, উর্ধোগতি, অধোগতি এবং জন্মান্তরের রহস্য”
ডাঃ মৃনাল কান্তি দেবনাথ

জীবাত্মার কামনা বাসনার মুল উৎস শরীর, যা আসে এই মহা বিশ্বে  প্রকৃতি দত্ত যে গুন আছে- সত্ব, রঃজ, তম। ক্ষিতি (মৃত্তিকা=কঠিন পদার্থ), অব (জল), তেজ (অগ্নি), মরুত (পবন) ব্যোম (মহাবিশ্বে বিদ্যমান নানা শক্তি, তেজষ্কিয় পদার্থ,কনা, রশ্মি) এই পঞ্চ ভুত দিয়েই তৈরী শরীর। একে বলে ‘ক্ষর’ পুরুষ, যা শরীরের মৃত্যুর সংগে সংগে সেই পঞ্চ ভুতেই লয় বা শেষ হয়ে যায়।।

পরমাত্মা ‘অক্ষর পুরুষ’। এর ক্ষয় নেই। অক্ষর পুরুষ শরীরের মধ্যে চৈতন্য রুপে অধিষ্টান।

গুনাবলীর তারতম্য অনুসারে প্রানী কর্ম করে, তার ফল ভোগ করে জীবাত্মা।  অশুভ গুনাবলী ( রঃজ , তমো, রজস্তম , রঃজ এবং তম গুনের মিশ্রন) প্রানীকে অসৎ কর্মে লিপ্ত করে। প্রানী (মানুষ) সেই অসৎ কর্মের প্রভাবে পুনঃ পুনঃ জন্ম নেয় কামনা বাসনা চরিতার্থ করতে। অদম্য কামনা বাসনা একজন্মে পুরন সম্ভব নয় তাই বার বার আসা।  এই অশুভ গুনাবলীর  জন্য মানুষের (জীবাত্মা)  নিম্নগতি হয়। এই নিম্নগতি মানুষকে জন্মান্তরে মনুষ্ব্যেতর (নিম্ন প্রানী ) জীবন দেয়। শরীরের মধ্যে বদ্ধ আত্মা ( চৈতন্য) আর পরমাত্মায় লীন (মুক্ত) হতে পারে না। জন্ম জন্মান্তরের দুঃসহ যন্ত্রনা দায়ক চক্রে আবদ্ধ হয়ে এই সংসারে ঘুরে মরে।

সাধনার দ্বারা এই জন্মেই রঃজ, তম, রজোস্তম গুনের উপরে ওঠা যায়। সাধনার অগ্রগতি বা পরিসমাপ্তি সত্ব গুন লাভ। ধীরে ধীরে সত্বগুন জাগরিত করে অসৎ থেকে সৎ হবার রাস্তা অর্জন করে নিতে হয়। সত্বগুন মানুষকে দৈবত্ব দেয়। দেবতা হলে তবেই জীবাত্মা থেকে চৈতন্যরুপী ‘বদ্ধ আত্মা’ মুক্ত হতে পারে। মুক্ত আত্মা পরমাত্মায় (বিশ্ব চৈতন্য) লীন হয়ে যায়। সহজে আর পুনর্জন্ম হয় না। সেটাকেই বলে মুক্তি।

মুক্ত আত্মার আর জন্ম হয় না সেটা ঠিক নয়। বিশ্বে বিদ্যমান প্রকৃতি সদাই চৈতন্য রুপী কনাকে (পরমাত্মার অংশ যা কনা রুপ্র বিদ্যমান) আকর্ষিত করে। সেই আকর্ষনে বাধা পড়ে গেলেই আবার জন্ম হয়। আবার শুরু হয় এক কোষী প্রানী থেকে মানুষ ( ৮৪ লক্ষবার জন্ম নেবার পর) হবার প্রক্রিয়া, তারপর মানুষ থেকে দেবতা হবার সাধনা (উর্ধোগতি) বা মানুষ থেকে নিম্ন প্রানী হবার প্রক্রিয়া (নিম্নগতি=অধোগতি)।

এটাই জন্ম, সংসার জীবন, মানুষ, নিম্ন প্রানী, মৃত্যু এই সবের মুল রহস্য।

**************(আমি যা বুঝি তাই লিখলাম। পন্ডিতেরা আরো বিশদ ব্যাখ্যা করতে পারেন বা করবেন। আমি কিন্তু পন্ডিত নই। নেহাত এক ছা পোষা মানুষ। তাই ভুল লিখে থাকলে মানবেন না।) ***************

RELATED ARTICLES

আফগানিস্তান: আমেরিকা চিরকাল আফগানদের পাহারা দিবে কেন?

আফগানিস্তান: আমেরিকা চিরকাল আফগানদের পাহারা দিবে কেন? আমেরিকা কি আফগানদের বিপদে ফেলে চলে গেছে? 8 ই মে আফগানিস্তানের একটি স্কুলের বাইরে বোমা বিস্ফোরণের পরেও...

বৈদিক সভ্যতা! মানব সভ্যতার অহংকার।

বৈদিক সভ্যতা! মানব সভ্যতার অহংকার। আজকের দিনে কলেজ বিশ্ববিদ্যালয়ে পড়ুয়া হিন্দু তরুন তরুনীরা তাদের নিজ ধর্ম, কৃষ্টি ও সংস্কৃতির বিষয়ে আলোচনা করার ক্ষেত্রে চরম...

সতীদাহ কি হিন্দু ধর্মের প্রথা, বাল্য বিবাহ ও রাত্রীকালীন বিবাহের উৎপত্তির কারণ কি?

সতীদাহ কি হিন্দু ধর্মের প্রথা ? এবং বাল্য বিবাহ ও রাত্রীকালীন বিবাহের উৎপত্তির কারণ কি? ধর্মীয় বিষয় নিয়ে চুলকানো মুসলমানদের স্বভাব| এই চুলকাতে গিয়ে মুসলমানরা নানা...

Most Popular

বৈদিক সভ্যতা! মানব সভ্যতার অহংকার।

বৈদিক সভ্যতা! মানব সভ্যতার অহংকার। আজকের দিনে কলেজ বিশ্ববিদ্যালয়ে পড়ুয়া হিন্দু তরুন তরুনীরা তাদের নিজ ধর্ম, কৃষ্টি ও সংস্কৃতির বিষয়ে আলোচনা করার ক্ষেত্রে চরম...

বেদে স্পষ্ট করে গো হত্যা নিষেধ আছে-দুর্মর

বেদে স্পষ্ট করে গো হত্যা নিষেধ আছে। অপপ্রচার এর জবাব গো হত্যা এরজবাব। অনেক বিধর্মী এবং অপপ্রচার কারী রা বেদে গো হত্যা এর কথা...

পুষ্যমিত্র শুঙ্গ: ভারতে বৈদিক ধর্মের পুনঃপ্রতিষ্ঠাতা। বৌদ্ধধর্মের শাসন সমাপ্তি করেছিল মৌর্য সাম্রাজ্যের সাথে!

পুষ্যমিত্র শুঙ্গ: ভারতে বৈদিক ধর্মের পুনঃপ্রতিষ্ঠাতা। বৌদ্ধধর্মের শাসন সমাপ্তি করেছিল মৌর্য সাম্রাজ্যের সাথে! ভারতবর্ষে অনেক মহান রাজা রয়েছেন। হিন্দু ধর্ম গ্রন্থ এবং ঐতিহাসিক সাহিত্য...

অনাদি হিন্দু জাতি কী? হিন্দু জতি সুদূর অতীত থেকেই অস্তিত্বশীল, কখনও কৃত্রিম সত্তা ছিল না।

অনাদি হিন্দু জাতি কী? হিন্দু জতি সুদূর অতীত থেকেই অস্তিত্বশীল, কখনও কৃত্রিম সত্তা ছিল না। আজকাল হিন্দু ও জাতীয়তাবাদের মতো শব্দগুলি শোনা যাচ্ছে এবং...

ভারতীয় সভ্যতার এমন শক্তি আছে যা ভােগবাদী দুনিয়াকে সঠিক পথের সন্ধান দিতে পারে।

ভারতীয় সভ্যতার এমন শক্তি আছে যা ভােগবাদী দুনিয়াকে সঠিক পথের সন্ধান দিতে পারে। প্রথমদিকে নানাভাবে অতিরিক্ত চাহিদা নিয়ন্ত্রণে বাধ্য করতে হবে। প্রয়ােজনে শক্তি প্রয়ােগ...

আমাদের সুপ্রাচীন সভ্যতার গৌরবময় মহান ঐতিহ্য জানতে হবে, সময় এসেছে ভুল সংশােধনের।

সুপ্রাচীন সভ্যতা: আমাদের সুপ্রাচীন সভ্যতার গৌরবময় মহান ঐতিহ্য জানতে হবে, সময় এসেছে ভুল সংশােধনের। যে কেউ খোলা চোখে তাকালে আধুনিক বিশ্বের চতুর্দিকে নানা ধরনের পরস্পর...

আর্যরা বহিরাগত নয়: আর্য দ্রাবিড় এক জনজাতি, ‘আর্যরা বহিরাগত’ এই তত্ত্বের উদ্ভাবনের কারণ কি?

আর্যরা বহিরাগত নয়: আর্য দ্রাবিড় এক জনজাতি, 'আর্যরা বহিরাগত' এই তত্ত্বের উদ্ভাবনের কারণ? আর্যরা বহিরাগত নয়: আর্য দ্রাবিড় এক জনজাতি, "আর্যরা বহিরাগত আক্রমণকারী- একটি...
%d bloggers like this: