অনেকেই বলেন ভাই আপনারা নাস্তিক হয়েছেন ভালো কথা তো নিজেদের মতো থাকুন না,, কেনো ইসলামের সমালোচনা করেন?
কারন ভাই, ইসলামের সমালোচনা করি বা না করি, ইসলাম ধর্ম-ত্যাগিদের সব ক্ষেত্রেই হ-ত্যার নির্দেশ দেয়।

*সহীহ বুখারী, হাদিস নং-৩০১৭

নাবী সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম বলেছেন, যে লোক তার দ্বীন বদলে ফেলে, তাকে হ-ত্যা করে ফেল।’ (৬৯২২) (আধুনিক প্রকাশনীঃ ২৭৯৫, ইসলামিক ফাউন্ডেশনঃ ২৮০৫)

*সহীহ বুখারী, হাদিস নং-৩৬১১

নাবী সাল্লাল্লাহু (সঃ) বলেছেনশেষ যুগে একদল যুবকের আবির্ভাব ঘটবে যারা হবে স্বল্পবুদ্ধি সম্পন্ন। তারা মুখে খুব ভাল কথা বলবে। তারা ইসলাম হতে বেরিয়ে যাবে যেভাবে তীর ধনুক হতে বেরিয়ে যায়। তাদের ঈমান গলদেশ পেরিয়ে ভেতরে প্রবেশ করবে না। যেখানেই এদের সঙ্গে তোমাদের দেখা মিলবে, এদেরকে তোমরা হ-ত্যা করে ফেলবে। যারা তাদের হ-ত্যা করবে তাদের এই হত্যার পুরস্কার আছে ক্বিয়ামাতের দিন। (৫০৫৭, ৬৯৩০, মুসলিম ১২/৪৮ হাঃ ১০৬৬, আহমাদ ৬১৬) (আধুনিক প্রকাশনীঃ ৩৩৪৩, ইসলামিক ফাউন্ডেশনঃ ৩৩৫০)

তাই মুখ বন্ধ করে হ-ত্যা মেনে নেওয়ার থেকে ইস-লামি বর্বতার বিরুদ্ধে কথা বলা উত্তম মনে করি।

ব্লগারদের স্মরণে_________________________________
 

ইসলাম হলো ইন্দুর মারা কল এখানে ডোকা যায়, বের হওয় যায় না।

কোন পৈশাচিক কারন ছাড়া,
তোমাকে না পাওয়ার আকুতির,
কোনো’ই কারন নাই,,,!
সেই ভাঙা কলম জুড়তে।
ছেড়া খাতায়,
          নতুন কিছু করতে।
মোরা তোমাকে বার-বার,
                         ফিরে চাই।

–এম এইচ সাগর