৯২% সাচ্চা মুসলমানের দেশে সংখ্যালঘুদের যেমন থাকার কথা ঠিক তেমনি আছে|
১৯৪৬ এর নোয়াখালী সংখ্যাগরিষ্ট মুসলমানকে পাল্টাতে পারেনি, ১৯৫০, ১৯৬২, ঢাকা, বরিশাল কিছুই সর্বশ্রেষ্ঠ মানব মহম্মদের অনুসারী বাংলাদেশের সংখ্যাগরিষ্ট মুসলমানকে পাল্টাতে পারেনি!

আরবের ইহুদীদের অবস্থা আজ থেকে প্রায় ১৪০০ বছর আগে কি হয়েছিল, বহু আলোচনা, বহু লেখকের লেখার ফলে, আজকে অনেকেই জানেন|  আজকের বাংলাদেশেও সংখ্যালঘুদের অনেকটা এরকমই অবস্থা!

নাসিরনগর কিছুদিন আগে দেখলাম, লংগদু দেখলাম, আবার শ্যামলকান্তি স্যারের অবস্থাও দেখলাম| নাহ! থামেনি!

আপনারা যে নিবিড়ভাবে কলম চালাচ্ছিলেন, কি ভেবে? ৯২% সংখ্যাগরিষ্ট মুসলমান আবার মানুষ হবে ভেবে? হয় নি!

তাই দিনাজপুরের প্রতন্ত গ্রামে এক গরিব চাষার ক্ষেতে যখন অবাধ্য গরু ঢুকে পরে, তখন সংখালঘু ধন্যরামের মা ক্ষেত বাঁচাতে গরুকে খেন্দায়! কিন্তু গরু যে ৯২% সংখাগরিষ্ঠ মুসলমান , নবীর অনুসারী, প্রভাবশালী নেতা কর্তার বাড়ির গরু!!

শালা যাবে কই?? মার শালা মালাউনের বাচ্চাদের!! শুধু মার? নবির মত ইজ্জৎ লঠ শালা মালাউন মাগির!

অভাগা ধন্যরাম! মায়ের শ্লীলতাহানি, হয়রানি দেখতে পারলো না! গেল প্রতিবাদ করতে| আর তার ফলে কি হলো?——-

ধন্যরামকে অন্ডকোষ থেতলে মেরে ফেলা হলো| কি অবাক হচ্ছেন? আমি হচ্ছিনা| যারা মেরেছে, তারা ইসলাম অনুযায়ী কাজ করেছে! নবী গর্দান নিতে বলেছিলেন আর এখানে বিচি নিয়েছে! কাজ কিন্তু একই করেছে|

তা মালাউনরা, আপনেগো জন্মভূমিতে ভালা আছেন তো?

(পুনশ্চ: এটি একটি অতিরঞ্জিত লেখা|
সবকিছু দেখা প্রধানমন্ত্রীর পক্ষে সম্ভব নয়! বিদেশযাত্রায় ক্লান্ত!)