যখন ঘোমটা প্রথাকে অভিশাপ বলা লোকেরা বোরখা, হিজাব দেখে চুপ করে যায়…

যখন বছরে একবার পুজো পার্বনে মাইক বাজানোর বিরোধিতা করা লোকেরা মসজিদের ৩৬৫ দিন ৫ বেলা মাইক দেখে চুপ করে যায়…

যখন নারীদের অধিকারের কথা বলা লোকেরা তিন তালাক দেখে চুপ করে যায়…

যখন বেশ্যাবৃত্তির বিরোধীতা করা লোকেরা মুসলিমদের “হালালা প্রথা” দেখে চুপ করে যায়….

যখন অযোধ্যায় করসেবকদের উপর গুলি চালানো
লোকেরা কাশ্মীরি পন্ডিতদের প্রকাশ্য খুন হতে দেখে চুপ করে যায়…

যখন জালিকাট্টুকে নৃশংস বলা লোকেরা ঈদের সময় নিরীহ গোরু কুরবানী দেখে চুপ হয়ে যায়…

যখন ইকায়ুব, আফজলের ফাঁসীর বিরোধীতা করা লোকেরা সর্বজিৎ, কুলভূষন যাদবের ফাঁসীর কথা শুনে চুপ হয়ে যায়…

যখন আখলাখের মৃত্যুতে চেঁচানো লোকেরা ডঃ নারাং, ইন্দ্রজিত দত্তের মৃত্যুতে চুপ করে যায় (অনেকেই হয়ত নামদুটি প্রথম শুনছেন) …

যখন হিন্দুদের ধর্মপালন কে ন্যাকামি  বলা লোকেরা মুসলিম ধর্মের জন্য চুপ হয়ে যায়…

যখন হিন্দুদের একটা স্ত্রীর ন্যায় দাবী করার লোকেরা মুসলিমদের চারটে স্ত্রী দেখে চুপ করে যায়…

তখন জানবেন আমাদের দেশটা ধীরে ধীরে ইসলামিক রাষ্ট্র হতে চলেছে আর আমরা বুঝতেও পারছি না…