Friday, September 17, 2021
Home Bangla Blog পলাশীর যুদ্ধ: পলাশীর প্রান্তরে ১৭৫৭ সালে ভারতের স্বাধীনতা সূর্য অস্তমিত যায় নি।...

পলাশীর যুদ্ধ: পলাশীর প্রান্তরে ১৭৫৭ সালে ভারতের স্বাধীনতা সূর্য অস্তমিত যায় নি। শুধুমাত্র প্রভু বদল হয়েছিল।

পলাশীর যুদ্ধ: পলাশীর প্রান্তরে ১৭৫৭ সালে ভারতের স্বাধীনতা সূর্য অস্তমিত যায় নি। শুধুমাত্র প্রভু বদল হয়েছিল। মুসলমানের হাত থেকে ব্রিটিশের হাতে ক্ষমতা গিয়েছিল। আর কিছু নয়….।

একটা লম্পট নবাব যে প্রজাদের ঘরের সুন্দরী যুবতীদের ধরে নিয়ে নিজের হারেমে তুলত, একটা অত্যাচারী, নিষ্ঠুর নবাব, যার সম্পর্কে বিদ্যাসাগর লিখেছিলেন, এই বদমাইশের কারণে কোন স্ত্রীলোকই তার সতীত্ব রক্ষা করতে পারে নাই।

প্রজাদের পিঠের চামড়া তুলে আনা টাকায় যে ফূর্তি করত- তার পরাজয়ে বাঙালি কেন দুঃখ দেখাতে যাবে? বলছি ‘বাংলা বিহারের মহান অধিপতি নবাব সিরাজউদ্দৌলার’ কথা। এই অল্প বয়েসী শয়তানটি কোন্ দিক দিয়ে ইস্ট ইন্ডিয়া কোম্পানির চেয়ে ভাল ছিল?

ইংরেজের বিরুদ্ধে নবাব সিরাজউদ্দৌলার বাহিনী যখন লড়াই করছে তখন বাঙালি কেন ধান ক্ষেতে নিজেদের কাজ নিয়ে ব্যস্ত ছিল – বাঙালি কেন প্রতিবাদ প্রতিরোধে মুখর হয়নি – এই আক্ষেপ বামাতি কথাসাহিত্যিক, ব্লগার কিলিংয়ের সময়ের অন্যতম রাজাকার জনাব সাহেবের।

আগেও দেখেছি, বাঙালি কথাসাহিত্যিকরা বঙ্গে মুসলিম আগমন এবং তাদের মহান ধর্মীয় ভ্রাতৃত্ব দেখে দলে দলে স্থানীয়রা মুসলমান হয়েছিল – এইরকম প্রচলিত গল্পগুজবকে ভিত্তি করে ঐতিহাসিক উপন্যাস লিখেছেন।

ইতিহাসে যার মীমাংসা নেই, বঙ্গের মুসলমানদের নিউক্লিয়াস যেহেতু অমীমাংসিত, সেখানে সুফিদের মহান দেখিয়ে ইসলামের জয়গান গেয়ে এইসব কথিত প্রগতিশীল সাহিত্যিকরা আমাদের সামনে দুটো জিনিস দাঁড় করানো – হয় এদের কোন পড়ালেখা গবেষণা নেই। নতুবা এরা আগাগোড়াই মুসলমান সাম্প্রদায়িক মানসিকতার লোকজন…।

‘পলাশীর প্রান্তরে বাংলার স্বাধীনতার সূর্য অস্ত যাবার’ মত ইতিহাসের শিরোনাম যারা লিখেছিলেন নিশ্চিতভাবেই তারা নিজেদের কেবল মুসলমানই ভাবতেন। আফগান, তুর্কি আরব রাজবংশগুলো নিজেদের মুসলমান জাতি হিসেবেই মনে করত। ইতিহাসে তাদের শাসনামলকে মুসলিম শাসনই বলা হয়।

কাজেই পলাশীর প্রান্তরে ইংরেজ বেনিয়াদের হাতে মুসলমানদেরই পরাজয় ঘটেছিল তাতে কোন সন্দেহ নাই। কিন্তু সেটা কি করে বাংলার স্বাধীনতা হরণ হয়? কোন বাঙালিই এই ইতিহাস মেনে নিবে না। বাংলাভাষী মুসলমানদের জন্য অবশ্য নবাবের পরাজয় তাদেরই পরাজয়।

নবাবের বাহিনী যখন ইংরেজদের হাতে পরাজয় নিশ্চিত করল তখন বাংলার কৃষকের কোন জয় পরাজয়ই ঘটেনি। সিরাজউদ্দৌলা বাঙালি ছিলেন না। সিরাজের নানা আলিবর্দি খাঁ মারাঠাদের বিরুদ্ধে যুদ্ধ করে টিকে ছিলেন। মারাঠারা ভারতবর্ষের সন্তান হলেও তারাও বাংলার মানুষ ছিলেন না। সেন রাজাও যেমন বাংলায় বহিরাগত ছিলেন।

পাল রাজাই ছিলেন বাংলার নিজস্ব রাজা। রাজা শশাঙ্ক ছিলেন প্রথম বাঙালি যিনি সাত শতকের দিকে বঙ্গ বিহার উড়িষ্যার অধিপতি ছিলেন। পরে পালরা চারশো বছর রাজত্ব করেছিলেন বাংলায়। পালরা দক্ষিণ ভারত থেকে আগত সেনদের হাতে ক্ষমতা হারায়। আর সেনদের হাত থেকে মুসলমানরা ক্ষমতা নিয়ে নেয়।

সেই মুসলমানরা পরাজিত হলো ইউরোপীয়ানদের হাতে পলাশীর প্রান্তরে ১৭৫৭ সালে। তাহলে কেমন করে বাংলার স্বাধীনতার সূর্য সেদিন অস্ত গিয়েছিল? এমন ইতিহাস যারা আজো বয়ে বেড়ান তারা বড়জোর বাংলাভাষী মুসলমান হতে পারেন- এর বেশি কিছু না…।

আরো পড়ুন…

RELATED ARTICLES

২৬/১১-র মুম্বই হামলার ধাঁচেই নাশকতার ছক: দিল্লি, মুম্বাই, ইউপি তে সিরিয়াল বিস্ফোরণের ঘৃণ্য চক্রান্ত ব্যর্থ করল প্রশাসন!

২৬/১১-র মুম্বই হামলার ধাঁচেই নাশকতার ছক: দিল্লি, মুম্বাই, ইউপি তে সিরিয়াল বিস্ফোরণের ঘৃণ্য চক্রান্ত ব্যর্থ করল প্রশাসন! সবচেয়ে বড় কথা হল আইএসআইয়ের এই সম্পূর্ণ...

আশ্রয় দেওয়া দেশগুলোতে জিহাদ একটি বড় চ্যালেঞ্জ হয়ে ওঠছে।

শরণার্থী : আশ্রয় দেওয়া দেশগুলোতে ইসলামী মৌলবাদিদের জিহাদ একটি বড় চ্যালেঞ্জ হয়ে ওঠছে।নিউজিল্যান্ড ইসলামী জিহাদিদের ছুরি হামলা, হামলাকারী একজন শ্রীলংকান মুসলিম শরণার্থী। অন্য দিকে জার্মানিতে...

কেরালা ভারতে অশান্তির নীরব রাজধানী হয়ে উঠছে। আগামী ১০ বছরের মধ্যে কেরালা পরবর্তী কাশ্মীর হয়ে যাবে।

কেরালা ভারতে অশান্তির নীরব রাজধানী হয়ে উঠছে। আগামী ১০ বছরের মধ্যে কেরালা পরবর্তী কাশ্মীর হয়ে যাবে। কেরালার হিন্দুদের কাছ থেকে ভারতের অনেক কিছু শেখার আছে। কাশ্মীরি...

Most Popular

২৬/১১-র মুম্বই হামলার ধাঁচেই নাশকতার ছক: দিল্লি, মুম্বাই, ইউপি তে সিরিয়াল বিস্ফোরণের ঘৃণ্য চক্রান্ত ব্যর্থ করল প্রশাসন!

২৬/১১-র মুম্বই হামলার ধাঁচেই নাশকতার ছক: দিল্লি, মুম্বাই, ইউপি তে সিরিয়াল বিস্ফোরণের ঘৃণ্য চক্রান্ত ব্যর্থ করল প্রশাসন! সবচেয়ে বড় কথা হল আইএসআইয়ের এই সম্পূর্ণ...

আশ্রয় দেওয়া দেশগুলোতে জিহাদ একটি বড় চ্যালেঞ্জ হয়ে ওঠছে।

শরণার্থী : আশ্রয় দেওয়া দেশগুলোতে ইসলামী মৌলবাদিদের জিহাদ একটি বড় চ্যালেঞ্জ হয়ে ওঠছে।নিউজিল্যান্ড ইসলামী জিহাদিদের ছুরি হামলা, হামলাকারী একজন শ্রীলংকান মুসলিম শরণার্থী। অন্য দিকে জার্মানিতে...

কেরালা ভারতে অশান্তির নীরব রাজধানী হয়ে উঠছে। আগামী ১০ বছরের মধ্যে কেরালা পরবর্তী কাশ্মীর হয়ে যাবে।

কেরালা ভারতে অশান্তির নীরব রাজধানী হয়ে উঠছে। আগামী ১০ বছরের মধ্যে কেরালা পরবর্তী কাশ্মীর হয়ে যাবে। কেরালার হিন্দুদের কাছ থেকে ভারতের অনেক কিছু শেখার আছে। কাশ্মীরি...

মন্দির-মসজিদ সহাবস্থান যতগুলি ধর্মীয় সহিষ্ণুতার বিজ্ঞাপন দেখেন তার সবগুলিই মন্দির আগে প্রতিষ্ঠা হয়েছে তারপর মসজিদ।

মন্দির-মসজিদ সহাবস্থান যতগুলি ধর্মীয় সহিষ্ণুতার বিজ্ঞাপন দেখেন তার সবগুলিই মন্দির আগে প্রতিষ্ঠা হয়েছে তারপর মসজিদ। সাম্প্রতিক সময়ে বাংলাদেশের চট্টগ্রামে একজন মুসলিম যুবক চন্দ্রনাথ ধামে...

Recent Comments

%d bloggers like this: