Monday, September 20, 2021
Home Bangla Blog হঠাৎ হিন্দু ধর্মীয় কল্যাণ ট্রাস্টের মুখ ফুটলো কেন? সাড়ে তিন কোটি থেকে...

হঠাৎ হিন্দু ধর্মীয় কল্যাণ ট্রাস্টের মুখ ফুটলো কেন? সাড়ে তিন কোটি থেকে দু কোটি হওয়ার সময় তো চাঁদমুখ খানি দেখা যায়নি।

হঠাৎ হিন্দু ধর্মীয় কল্যাণ ট্রাস্টের মুখ ফুটলো কেন? সাড়ে তিন কোটি থেকে দু কোটি হওয়ার সময় তো চাঁদমুখ খানি দেখা যায়নি।
.
.
হিন্দু ধর্মীয় কল্যাণ ট্রাস্টের ভাইস চেয়ারম্যান বিচারপতি গৌর গোপাল সাহা বলেন, ‘একজন ক্ষুদ্র নৃ-গোষ্ঠীর মানুষ হয়েও শেখ হাসিনার দাক্ষিণ্যে বিশেষ সাংবিধানিক পদে অধিষ্ঠিত হয়ে বিচারপতি সিনহা যে সুযোগ পেয়েছিলেন, তিনি তার সম্মান রক্ষায় ব্যর্থ হয়েছেন।’

তিনি বলেন, ‘আমরা আশা করব- সকল মহল নিজ নিজ দায়িত্ব, অধিকার ও কর্তব্য সম্পর্কে সজাগ থেকে জাতির কপালে যে কলঙ্কের দাগ লেপন করা হয়েছে তার সম্মানজনক নিষ্পত্তি করবে।’

প্রধান বিচারপতি শান্তি কমিটির সদস্য হিসেবে মুক্তিযুদ্ধচলাকালীন আরাম-আয়েশে দিন কাটিয়েছেন বলেও গণমাধ্যমের বরাত দিয়ে জানান গৌর গোপাল।

এই বিচারপতি বলেন, ‘হিন্দু নামধারী ব্যক্তি বিশেষের অপকর্মের দায় দায়িত্ব তারা (হিন্দুরা) কোনোভাবেই বহন করে না।’
.
.
১। ক্ষুদ্র নৃগোষ্ঠী বলে সম্বোধন করে নিজের জাত্যভিমান প্রকাশ করলেন নাকি?

২। দাক্ষিণ্যের সম্মান রক্ষা তিনি না করতে পারলেও আপনি যে বেশ ভালোই পারছেন তা নিশ্চিত থাকুন।

৩। কোন জাতির কপালে কলঙ্কের দাগ লেপিত হয়েছে? বাঙালি জাতি? হিন্দু জাতি? নাকি ক্ষুদ্র নৃজাতি? আপনি আবার জাতি বলতে কখন কি বোঝান বলা মুশকিল!

৪। শান্তি কমিটির অনেকেই মন্ত্রীপরিষদে ছিল, তাদের নিয়ে কোন একদিন মুখ খুলুন মশায়। কতদিন আর চেপেচুপে থাকবেন? আপনি তো ভালই চেনেন কারা কারা ছিল!

৫। হঠাৎ দায় বহনের প্রশ্ন আসছে কেন বুঝলাম না! এটা কি কারো কথার উত্তর ছিল? কেউ কি বলেছিল – সিনহার পদক্ষেপের দায় আপনাদের সবাইকে নিতে হবে?

RELATED ARTICLES

২৬/১১-র মুম্বই হামলার ধাঁচেই নাশকতার ছক: দিল্লি, মুম্বাই, ইউপি তে সিরিয়াল বিস্ফোরণের ঘৃণ্য চক্রান্ত ব্যর্থ করল প্রশাসন!

২৬/১১-র মুম্বই হামলার ধাঁচেই নাশকতার ছক: দিল্লি, মুম্বাই, ইউপি তে সিরিয়াল বিস্ফোরণের ঘৃণ্য চক্রান্ত ব্যর্থ করল প্রশাসন! সবচেয়ে বড় কথা হল আইএসআইয়ের এই সম্পূর্ণ...

আশ্রয় দেওয়া দেশগুলোতে জিহাদ একটি বড় চ্যালেঞ্জ হয়ে ওঠছে।

শরণার্থী : আশ্রয় দেওয়া দেশগুলোতে ইসলামী মৌলবাদিদের জিহাদ একটি বড় চ্যালেঞ্জ হয়ে ওঠছে।নিউজিল্যান্ড ইসলামী জিহাদিদের ছুরি হামলা, হামলাকারী একজন শ্রীলংকান মুসলিম শরণার্থী। অন্য দিকে জার্মানিতে...

কেরালা ভারতে অশান্তির নীরব রাজধানী হয়ে উঠছে। আগামী ১০ বছরের মধ্যে কেরালা পরবর্তী কাশ্মীর হয়ে যাবে।

কেরালা ভারতে অশান্তির নীরব রাজধানী হয়ে উঠছে। আগামী ১০ বছরের মধ্যে কেরালা পরবর্তী কাশ্মীর হয়ে যাবে। কেরালার হিন্দুদের কাছ থেকে ভারতের অনেক কিছু শেখার আছে। কাশ্মীরি...

Most Popular

২৬/১১-র মুম্বই হামলার ধাঁচেই নাশকতার ছক: দিল্লি, মুম্বাই, ইউপি তে সিরিয়াল বিস্ফোরণের ঘৃণ্য চক্রান্ত ব্যর্থ করল প্রশাসন!

২৬/১১-র মুম্বই হামলার ধাঁচেই নাশকতার ছক: দিল্লি, মুম্বাই, ইউপি তে সিরিয়াল বিস্ফোরণের ঘৃণ্য চক্রান্ত ব্যর্থ করল প্রশাসন! সবচেয়ে বড় কথা হল আইএসআইয়ের এই সম্পূর্ণ...

আশ্রয় দেওয়া দেশগুলোতে জিহাদ একটি বড় চ্যালেঞ্জ হয়ে ওঠছে।

শরণার্থী : আশ্রয় দেওয়া দেশগুলোতে ইসলামী মৌলবাদিদের জিহাদ একটি বড় চ্যালেঞ্জ হয়ে ওঠছে।নিউজিল্যান্ড ইসলামী জিহাদিদের ছুরি হামলা, হামলাকারী একজন শ্রীলংকান মুসলিম শরণার্থী। অন্য দিকে জার্মানিতে...

কেরালা ভারতে অশান্তির নীরব রাজধানী হয়ে উঠছে। আগামী ১০ বছরের মধ্যে কেরালা পরবর্তী কাশ্মীর হয়ে যাবে।

কেরালা ভারতে অশান্তির নীরব রাজধানী হয়ে উঠছে। আগামী ১০ বছরের মধ্যে কেরালা পরবর্তী কাশ্মীর হয়ে যাবে। কেরালার হিন্দুদের কাছ থেকে ভারতের অনেক কিছু শেখার আছে। কাশ্মীরি...

মন্দির-মসজিদ সহাবস্থান যতগুলি ধর্মীয় সহিষ্ণুতার বিজ্ঞাপন দেখেন তার সবগুলিই মন্দির আগে প্রতিষ্ঠা হয়েছে তারপর মসজিদ।

মন্দির-মসজিদ সহাবস্থান যতগুলি ধর্মীয় সহিষ্ণুতার বিজ্ঞাপন দেখেন তার সবগুলিই মন্দির আগে প্রতিষ্ঠা হয়েছে তারপর মসজিদ। সাম্প্রতিক সময়ে বাংলাদেশের চট্টগ্রামে একজন মুসলিম যুবক চন্দ্রনাথ ধামে...

Recent Comments

%d bloggers like this: