মুখ্যমন্ত্ৰীর মুকুটে যুক্ত হল নতুন পালক..এবার জায়গা বাদুড়িয়ার রুদ্রপুর…..হাজারে হাজারে উগ্ৰ মৌলবাদীদের আক্ৰমণে কেঁপে উঠল রুদ্রপুর…ঘটনা একজনের ফেসবুক পোস্টকে কেন্দ্ৰ করে…বহু দোকান ও বাড়ি ভাংচুর করে মৌলবাদী জিহাদীরা…ছেলেটি(সৌরভ সরকার, Class XII) গ্রেফতার হলেও এখনো পরিস্থিতি থমথমে….
ক্ৰমশ উত্তপ্ত হচ্ছে বসিরহাট জেলার বাদুরিয়ার  পরিস্থিতি!!
বাদুরিয়ার আশেপাশের এলাকার প্রায় ৩০ কিমি রাস্তা অবরোধ এবং মুসলিম আধুষ্যিত এলাকায় হিন্দু দের দোকান ও বাড়ি ভাংচুর চলছে।।। *দরকার করিস্থির ব্যপক প্রচার করে সরকার কে রাজধর্ম পালন করে পরিস্থি মোকাবেলা করতে বাদ্ধ করা* ।।।।
পুলিশ ও র‍্যাপ দাড়িয়ে সব দেখছে।।।।
প্রথম আজ 3/7/17 সকাল ৫টা থেকে কেওশা বাজারে অবরোধ শুরু হয়। তার পর বেলা বারার সাথে সাথে হুগ্ললি বাশতলা, রামচন্দ্রপুর, এবং তেতুলিয়া, গকুলপুর এ রাস্তা অবোরধ হয়। এবং সেই সংগে হিন্দুদের সম্পত্তি নষ্ট হয় । গাড়ির টায়ার জ্বলিয়ে রাস্তা অবরোধ করা হয়।
এই অবোরধ এর মধ্যে এক পরিবার মৃতদেহ নিয়ে যাচ্ছিল গঙ্গা তে দাহ করার জন্য।হুগলি বাশতলা তে সেই গাড়ি ব্যাপক ভাংচুর করা হয় এবং ফিরিয়ে দেওয়া হয়।।
এই মাত্র খবর আসলো মগড়া তে কিছু বাড়ী তে আগুন দিয়েছে। বাদুড়িয়া আরো ভয়ঙ্কর ভাবে অবরোধের তীব্রতা বেড়েছ । শায়েস্তানগরে শফিরাবাদে মিডেমিল শেষ হলেই  স্কুল বন্ধ করতে চেয়ে ছিলেন সহকারি প্রধান শিক্ষক, ততক্ষণ অপেক্ষা করতে রাজিছিল না বিক্ষভকারিরা… ফল বিদ্যালয়ে ভাঙচুর করা হয়, সম্পদহানী করাহয়।

এলাকাবাশির আসঙ্কা আজ রাতেই দুলাখ মুসলিম একত্রিত হয়ে বাদুড়িয়া থানায়  গ্রেপ্তার হওয়া সুদিপ্ত সরকার সহ থানা জ্বালিয়ে দেওয়ার সম্ভাবনা আছে। তেমন হলে বাদ যাবে না ঐ এলাকার কোন হিন্দুর দোকান ও বাড়ি।
ঐতিহ্যবাহি চাতরা-চণ্ডিপুরের রথের যাত্রা পথ পরিবর্তন করা হলো।
এই মুহুর্তে তেতুলিয়ার উপরে শবদেহের গঙ্গা যাত্রার রাস্ত করে দেওয়ার দাবিতে পথ অবরোধ করেছে মৃতের আত্মীয় পরিজনেরা।
*আতঙ্কগ্রস্ত বসিরহাটের সংখ্যা লঘু হিন্দুর পাশে দাঁড়ান দয়াকরে ।*

বসিরহাট জেলার মাননীয় কার্যকর্তা দের কাছে নিবেদন…
দয়াকরে আপনার ফেসবুক ওয়ালে বাদুড়িয়ার সংখ্যালঘু হিন্দু দের জন্য ও স্বরূপনগর এর শ্মশান যাত্রীদের জন্য একটু স্নান দিন, এই প্রার্থনা করছি ।

https://m.facebook.com/story.php?story_fbid=1227931820651186&id=100003031384092