Thursday, July 29, 2021
Home Bangla Blog ভারতীয় সভ্যতাই কেন গোকে এবং নদীকে মাতা বলা হয়???

ভারতীয় সভ্যতাই কেন গোকে এবং নদীকে মাতা বলা হয়???

#গোনুভূতি

সভ্যতার গতিপথে সম্পদের যখন অবমূল্যায়ন হলো, সম্পদ তখন রূপ বদলে পরম্পরা, সংস্কৃতির মাধ্যমে এক বিশেষ রূপে সম্মান পেতে শুরু করল।

পৃথিবীর প্রত্যেকটি সভ্যতাই কেবল মানুষের অক্লান্ত পরিশ্রমে গড়ে ওঠেনি, অদম্য মানবিক প্রচেষ্টাকে সবসময় উজাড় করে সাহায্য করে গেছেন পরমাপ্রকৃতি আর কিছু অবলা মানুষ বান্ধব প্রাণী, সভ্যতার বিকাশে সবথেকে বড় প্রেরণা হলো নদী।

যেহেতু পৃথিবী প্রাচীন সভ্যতা গুলি নূতনের আগ্রাসনে আজ ধ্বংসপ্রাপ্ত, সেহেতু সভ্যতার জন্মলগ্ন নিয়ে আজ আর কেউ ভাবেনা।

সেইদিক থেকে আমরা ভারতীয়রা অন্য প্রকার গর্ব অনুভব করি, পৃথিবীর সর্বশ্রেষ্ঠ এবং প্রাচীন সভ্যতা এখন আমাদের ধমনিতে প্রভাবিত হচ্ছে, যার ধ্বংস কোন অর্বাচীন, বর্বর নূতনের দ্বারা সম্ভব হয়নি আর ভবিষ্যতেও হবেনা।

ভারতীয় আর্য সভ্যতার সুগভীর ভিত্তিমূল আমাদের শরীরে মিশে আছে আমাদের জ্ঞাত বা অজ্ঞাতসারে।

আর্য সভ্যতা নদী কেন্দ্রিক সভ্যতা, আর আমরা সেই নদীর দানকে স্মরণ করি তাই নদীকে আমরা মা বলি, এই মা সভ্যতার পালনকারী মা, তাই সভ্যতার বিশ্বাসী সকলের মা, এটাই আমাদের পরম্পরা।

আর্য সভ্যতার আরেক সহায়ক হলো গো, সভ্যতার সমৃদ্ধির জন্য এই অবলা পশুর অবদান অনস্বীকার্য। আর্য সভ্যতায় গো ছিল মানুষের অন্যতম প্রধান সম্পদ, কৃষি, দুধ,ঘি সবকিছুর জন্যই গো এর উপর মানুষের নির্ভরশীলতা ছিল প্রশ্নাতীত।

গো সংখ্যা যার যত অধিক সে ততই সমৃদ্ধ, কন্যার বিবাহতেও গো দান করবার প্রচলন ছিল, কন্যার শ্রীবৃদ্ধির জন্য। গো এতই মূল্যবান সম্পদ ছিল যার জন্য গো কে অদিতি বলা হয়, যার মানে অখণ্ডনীয়া এবং আর্য সভ্যতায় গো হত্যাকারীদের কঠিন কঠোর শাস্তির বিধান আছে।

সংহিতায় দেখা যায় বৈদিক ঋষি (অঙ্গীরাস বংশজ) আর ব্রাত্য যোগীদের গো রক্ষার জন্য অসুর/আসুর/আহুর ( এ্যসিরিয়) ও শকদের (শাক্যবংশীদের পূর্বপুরুষ)  সঙ্গে বিরাট সংগ্রাম।  গোধন রক্ষার জন্য ঋষিরা তুলে নিয়েছে অস্ত্র, অসুরদের তারিয়ে দিচ্ছে উত্তর পশ্চিম পথে, আর শকদের চেষ্টা চালাচ্ছে সংশোধনের।

যেহেতু সময় থেমে থাকেনা, আর সময়ের সঙ্গে কর্মকাণ্ডের পরিবর্তন হয় কিন্তু জ্ঞানকাণ্ড একই থাকে, সেহেতু সম্পদ অবমূলায়িত হয়েছে ঠিকি কিন্তু পরম্পরাগত ভাবে তাঁর সম্মানের অবমূল্যায়ন হয়নি,আমাদের সভ্যতার লালনকারিণী নদী ও গো সম্মান হেতু মাতৃরূপে কল্পিত দেবশক্তি, তাই আজো গোকে সেই অদিতি রূপেই চিন্তন করা হয়, কারণ এটা ভারতবর্ষ।

RELATED ARTICLES

আফগানিস্তান: আমেরিকা চিরকাল আফগানদের পাহারা দিবে কেন?

আফগানিস্তান: আমেরিকা চিরকাল আফগানদের পাহারা দিবে কেন? আমেরিকা কি আফগানদের বিপদে ফেলে চলে গেছে? 8 ই মে আফগানিস্তানের একটি স্কুলের বাইরে বোমা বিস্ফোরণের পরেও...

বৈদিক সভ্যতা! মানব সভ্যতার অহংকার।

বৈদিক সভ্যতা! মানব সভ্যতার অহংকার। আজকের দিনে কলেজ বিশ্ববিদ্যালয়ে পড়ুয়া হিন্দু তরুন তরুনীরা তাদের নিজ ধর্ম, কৃষ্টি ও সংস্কৃতির বিষয়ে আলোচনা করার ক্ষেত্রে চরম...

সতীদাহ কি হিন্দু ধর্মের প্রথা, বাল্য বিবাহ ও রাত্রীকালীন বিবাহের উৎপত্তির কারণ কি?

সতীদাহ কি হিন্দু ধর্মের প্রথা ? এবং বাল্য বিবাহ ও রাত্রীকালীন বিবাহের উৎপত্তির কারণ কি? ধর্মীয় বিষয় নিয়ে চুলকানো মুসলমানদের স্বভাব| এই চুলকাতে গিয়ে মুসলমানরা নানা...

Most Popular

বৈদিক সভ্যতা! মানব সভ্যতার অহংকার।

বৈদিক সভ্যতা! মানব সভ্যতার অহংকার। আজকের দিনে কলেজ বিশ্ববিদ্যালয়ে পড়ুয়া হিন্দু তরুন তরুনীরা তাদের নিজ ধর্ম, কৃষ্টি ও সংস্কৃতির বিষয়ে আলোচনা করার ক্ষেত্রে চরম...

বেদে স্পষ্ট করে গো হত্যা নিষেধ আছে-দুর্মর

বেদে স্পষ্ট করে গো হত্যা নিষেধ আছে। অপপ্রচার এর জবাব গো হত্যা এরজবাব। অনেক বিধর্মী এবং অপপ্রচার কারী রা বেদে গো হত্যা এর কথা...

পুষ্যমিত্র শুঙ্গ: ভারতে বৈদিক ধর্মের পুনঃপ্রতিষ্ঠাতা। বৌদ্ধধর্মের শাসন সমাপ্তি করেছিল মৌর্য সাম্রাজ্যের সাথে!

পুষ্যমিত্র শুঙ্গ: ভারতে বৈদিক ধর্মের পুনঃপ্রতিষ্ঠাতা। বৌদ্ধধর্মের শাসন সমাপ্তি করেছিল মৌর্য সাম্রাজ্যের সাথে! ভারতবর্ষে অনেক মহান রাজা রয়েছেন। হিন্দু ধর্ম গ্রন্থ এবং ঐতিহাসিক সাহিত্য...

অনাদি হিন্দু জাতি কী? হিন্দু জতি সুদূর অতীত থেকেই অস্তিত্বশীল, কখনও কৃত্রিম সত্তা ছিল না।

অনাদি হিন্দু জাতি কী? হিন্দু জতি সুদূর অতীত থেকেই অস্তিত্বশীল, কখনও কৃত্রিম সত্তা ছিল না। আজকাল হিন্দু ও জাতীয়তাবাদের মতো শব্দগুলি শোনা যাচ্ছে এবং...

ভারতীয় সভ্যতার এমন শক্তি আছে যা ভােগবাদী দুনিয়াকে সঠিক পথের সন্ধান দিতে পারে।

ভারতীয় সভ্যতার এমন শক্তি আছে যা ভােগবাদী দুনিয়াকে সঠিক পথের সন্ধান দিতে পারে। প্রথমদিকে নানাভাবে অতিরিক্ত চাহিদা নিয়ন্ত্রণে বাধ্য করতে হবে। প্রয়ােজনে শক্তি প্রয়ােগ...

আমাদের সুপ্রাচীন সভ্যতার গৌরবময় মহান ঐতিহ্য জানতে হবে, সময় এসেছে ভুল সংশােধনের।

সুপ্রাচীন সভ্যতা: আমাদের সুপ্রাচীন সভ্যতার গৌরবময় মহান ঐতিহ্য জানতে হবে, সময় এসেছে ভুল সংশােধনের। যে কেউ খোলা চোখে তাকালে আধুনিক বিশ্বের চতুর্দিকে নানা ধরনের পরস্পর...

আর্যরা বহিরাগত নয়: আর্য দ্রাবিড় এক জনজাতি, ‘আর্যরা বহিরাগত’ এই তত্ত্বের উদ্ভাবনের কারণ কি?

আর্যরা বহিরাগত নয়: আর্য দ্রাবিড় এক জনজাতি, 'আর্যরা বহিরাগত' এই তত্ত্বের উদ্ভাবনের কারণ? আর্যরা বহিরাগত নয়: আর্য দ্রাবিড় এক জনজাতি, "আর্যরা বহিরাগত আক্রমণকারী- একটি...
%d bloggers like this: