Nurul Momin Khan

আমি তো এটা মন্তব্য হিসাবে লিখেছিলাম আপনার পোস্টে যা আপনি সতর্কতার সাথে অনুপস্থিত রেথে আমার বক্তব্যকে একপেশে ভাবে উপস্থাপিত করেছেন |
যাই হোক আপনার পোস্টের link তুলে দিয়ে আমার বক্তব্যকে তথ্যভিত্তিক ব্যাখ্যা  করার চেষ্টা করছি |
পরিসংখ্যান অনুযায়ী ১৯৪১এর জনগননা অনুযায়ী পরবর্তিতে যা পশ্চিম পাকিস্তান নামে পরিচিত হয় সেই ভুখন্ডে হিন্দু population ছিল 22%, আর তদানিন্তন পুর্ব বাংলায় হিন্দু population was 28% . Sylhet এর জনবিন্যাস এর মধ্যে পরিগনিত হয় নি, তাকে consider করলে বোধকরি তা 30% অতিক্রম করতো |
পশ্চিম পাকিস্তানে আজ হিন্দুরা 1.5% এ নেমে এসেছে | তাও সিন্ধু প্রদেশের একাংশের বাইরে তাদেরকে খুজে পাওয়া যায় না |
পুর্ব পাকিস্তানে ( যার গালভরা নাম আপনারা দিয়েছেন বাংলাদেশ ) ২০১১তে হিন্দুর সংখ্যা ৮% নেমে আসে |  অনবরত নিস্ক্রমন চলাতে আন্দাজ এই মুহুর্তে হয়তো আরো কমে এসেছে | আপনাদের ঢাকা Universityর গবেষক বরকত সাহেবের মতে ২০৩০ সালের মধ্যে আপনারা হিন্দু শুন্য দেশ গঠন করবেন |
যৌক্তিক ভাবে দেখতে গেলে এটা ঘটারই ছিল |  মরক্কো থেকে ইন্দোনেশিয়া, এই সমগ্র ভুখন্ডে ইসলামের সর্বগ্রাসী আগ্রাসনের শিকার হয়েছে স্থানীয় (  aboroginal ) Culture | এক কথায় অবলুপ্ত হয়েছে সেই ভুখন্ডের মানুষের পিতৃপুরুষের আত্মপরিচয় |  প্রতিটি অধিবাসীর নাম পরিচয়ও হয় আরবি ভাষায় যেমন আপনার দেশের মানুষদের হয়ে থাকে | একমাত্র ব্যাতিক্রম ভারত যেথানে ৭০০ – ৮০০ বছরের অত্যাচারের পরেও সনাতন ধর্ম ও সংস্কৃতি নিজেকে টিকিয়ে রাখতে পেরেছে |
এবার আসি ভারতের প্রসঙ্গে |  ১৯৫১র জনগননা |  মুসলমান জনসংখ্যা ৮% |  ২০১১র জনগননা ,  মুসলমানরা ১৭%র অধিক |
গত ৭২ বছরের এই বিবর্তনের ফলাফল ???
কাশ্মীর, উত্তর প্রদেশের কৈরানা, বিহারের পুর্নিয়া, কিষানগন্জ, পশ্চিম বাংলার বাদুড়িয়া, কেরালার বিস্তৃত ষের অংশ, আসামের বরপেটা, যেখানে যেখানে মুসলমানরা ৪০-৪৫% cross করছে সেখানেই থিলাফতের দাবীর সঙ্গে ISISএর black flag বা পাকিস্তানের পতাকা পত পত করে উড়ছে |  মাদ্রাসা সমুহে জাতীয় পতাকার অবমাননা ও জাতীয় সঙ্গীতকে অশ্রদ্ধা করা হচ্ছে প্রতি দিন !!!
এবার আসি বাংলাদেশের চেতনা বা অর্জন ইত্যাদি প্রশ্নে |
আমার পুর্ব পুরুষরাও ১৯৫০এ ধানগাছের আড়ালে লুকিয়ে থেকে প্রাণ বাচিয়ে চলে আসেন ভারতে |  আজো আপনারা শত্রু সম্পত্তি অর্পিত আইন বলবৎ রেখেছেন |  পারবেন আমাকে বা আমার মতো দেশছাড়াদেরকে তাদের পিতৃপুরুষের ভিটেতে ফিরিয়ে নিতে |  হয়তো দেখা যাবে আপনি বা আপনার কমেন্টদাতা বন্ধুরা অনেকেই বংশ পরম্পরা হিন্দুদের রেখে আসা সম্পত্তির জবর দখল মালিকানা ভোগ করছেন |
আম্বেদকার warning দিয়েছিলেন গান্ধীজিতে |  বলেছিলেন হিন্দু মুসলমানের ঐক্য সোনার পাথরবাটি |  পাকিস্তানের দাবি যেহেতু উঠেছে , তাকে মেনে নিয়ে total population exchange করে অনর্থক প্রাণহানি এড়ানো উচিত | কিন্তু গান্ধী, নেহেরু, সুভাষচন্দ্র , আমাদের নেতৃবর্গের ইসলামের ঐতিহাসিক পরম্পরা সম্বন্ধে উপলব্ধির অভাবজনিত কারনে রক্তপাত এড়ানো সম্ভব হয় নি | তাঁরা জানতেন না যে ইসলাম নিছক একটি ধর্ম নয় |  এটি একটি regimented রাজনৈতিক মতবাদ, যার দৃষ্টিতে অপর ধর্মবিশ্বাসির মৃত্যু বা পশুসুলভ existenceএর ( Jiziya Tax ) বাইরে কোন মধ্যপন্থা নেই |
হিন্দুর শেষ বাসভুমি ভারত |  আমরা যে কোন মুল্যে একে বাচাবো |  মোদী Citizenship Amendment Bill এনে Parliamentএ পাশ করিয়ে Afghanistan, Pakistan, Bangladesh এর Hindus, Christians, Buddhists and Sikhsদেরকে automatic Indian Citizenship grant করুন |
এবং Uniform Civil Code দ্বারা মুসলমানদের বহুবিবাহে prohibition এনে জনসংখ্যার balance নষ্ট হওয়া রোধ করুন |
https://m.facebook.com/story.php?story_fbid=1426625207488780&id=100004239431535