বাংলাদেশের কাগজী মুদ্রা বিভিন্ন টাকার নোটে দেখতে পাবেন মুসলমানদের ঐতিহাসিক মসজিদসমূহ । যে কারো প্রশ্ন উঠবে – বাংলাদেশে কি ঐতিহাসিক মন্দির নেই? কিন্তু থাকলেই বা কি, সাম্প্রদায়িক দেশে টাকার নোটে মসজিদ থাকাটাই স্বাভাবিক, মন্দির নয় ।

– পাঁচ টাকা
‘তারা মসজিদ’ – এর ছবি সম্বলিত নোট ইস্যু হয় । তারা মসজিদ পুরানো ঢাকার আরমানিটোলা আবুল খয়রাত সড়কে অবস্হিত । এর পরবর্তীতে পাঁচ টাকা নোটে তারা মসজিদের পরিবর্তে নওগাঁ জেলার মান্দা উপজেলার কুসুম্বা গ্রামে অবস্হিত দেশের উল্লেখযোগ্য কুসুম্বা মসজিদ স্হান পায় । নোটে মসজিদের প্রবেশ তোরণের ছবি দেওয়া হয়েছে । সুন্দর লতাপাতা খোচিত এই প্রবেশ তোরণ । মসজিদটির অপর নাম কালা পাহাড় ।

– দশ টাকা
প্রথমে তারা মসজিদ, পরবর্তীতে টাঙ্গাইল জেলার দেলদুয়ার উপজেলায় অবস্হিত ‘আতিয়া জামে মসজিদ’ এর ছবি সম্বলিত
নোট ইস্যু হয় । বর্তমানে আতিয়া জামে মসজিদের পরিবর্তে লালবাগ কেল্লা মসজিদের ছবি সম্বলিত নোট ইস্যু হয়েছে ।

– বিশ টাকা
ষাট গম্বুজ মসজিদ বাগেরহাট জেলায় অবস্হিত বাংলাদেশের প্রাচীন ও বৃহত্তর মসজিদের
মধ্যে অন্যতম । এর পরবর্তীতে বিশ টাকা নোটে সংযুক্ত করা হয় ছোট সোনা মসজিদ । যেটা চাঁপাইনবাবগঞ্জ জেলায় অবস্হিত বাংলাদেশের অন্যতম মসজিদ ।

– পঞ্চাশ টাকা
প্রথমে তারা মসজিদ, এরপর ষাট গম্বুজ মসজিদ ও বর্তমানে বাঘা মসজিদ । যেটা রাজশাহী জেলার বাঘা উপজেলাতে অবস্হিত অন্যতম
ব্যতিক্রমী মসজিদ ।

– একশত টাকা
প্রথমে তারা মসজিদ, পরবর্তীতে সেটা পরিবর্তন হয়ে বর্তমানে ষাট গম্বুজ মসজিদ স্হান পায় ।

– পাঁচশত টাকা
সাত গম্বুজ মসজিদ যেটা ঢাকার মোহাম্মদপুরে অবস্হিত মুঘল আমলে নির্মিত মসজিদ । যে মসজিদের ছবি বর্তমানে পাঁচশত টাকার নোটে স্হান পেয়েছে ।

তাহলে কি বুঝলেন কোনো টাকার নোটেই হিন্দুদের কোনো ঐতিহাসিক মন্দিরের ছবি নেই । তবুও নাকি বাংলাদেশ অসাম্প্রদায়িক ।