মাত্র ২৪ ঘন্টা ভারত মালয়েশিয়ার সাথে সম্পর্ক বিচ্ছেদ করে ছিলো, এতেই তো মালয়েশিয়া সরকারের খবর হয়ে যায়।

Spread the love

নয়ন চ্যাটার্জী গং অতীতে প্রায় বলতো মালয়েশিয়াতে নাকি ভারতীয় হিন্দুরা মালয় ও স্হানীয় মুসলমানদের উপর নির্যাতন করছে। মালয়েশিয়াতে মূলত ভারত ও শ্রীলংকার তামিল, কেরালা ও পশ্চিমবঙ্গের হিন্দুদের অবস্হান। এখানে তামিল হিন্দুদের শক্তিমত্তা সব সময় ই বেশি ছিল। মালয়েশিয়ায় ভারতীয় হিন্দুদের নিয়ে গত বছর আমি আন্তর্জাতিক অভিবাসী দিবস উপলক্ষে ফুটিয়ে তুলে ছিলাম। নতুন করে বলার আর কি আছে?
বীণা সিক্রি তখন মালয়েশিয়ায় ভারতের হাই কমিশনার। একবার মালয়েশিয়ার পুলিশ অবৈধ শ্রমিকদের চিহ্নিত করতে বিভিন্ন মেসে
অভিযান চালান। অভিযান চলাকালে কোনো এক ভারতীয় ব্যক্তির পাসপোর্ট ছুঁড়ে মারে
এক পুলিশ সদস্য। এ ঘটনায় চরম ক্ষুদ্ধ হয় ওই ভারতীয় নাগরিক। তার কাছে মনে হলো তার পাসপোর্টকে অপমান মানে তার দেশকে
অপমান করা হয়েছে। ভারতীয় হিন্দু তথা শ্রমিকরা সাথে সাথে এই খবর তাদের হাই কমিশনারকে জানান। খবর পেয়ে সাথে সাথে বীণা সিক্রি যোগাযোগ
করেন নয়াদিল্লিতে।
তখন মনমোহন সিং সরকার বলেন, মালয়েশিয়া আমাদের পাসপোর্ট অবমাননা করেছে ! এর মানে ভারতকে অপমান। ২৪ ঘন্টার মধ্যে মালয়েশিয়ার সঙ্গে ভারতের সব ধরনের বিমান যোগাযোগ বন্ধ থাকবে এবং বন্ধ করে দেওয়া হবে
সব ধরনের বাণিজ্য। ভারত সরকার ঠিক তখনি এই সিদ্ধান্ত নেয়। সত্যি সত্যি বন্ধ হয়ে যায় মালয়েশিয়ার সাথে
বিমান চলাচল। মালয়েশিয়ার তখন
মাথায় হাত। ২৪ ঘন্টা পার হবার আগেই মালয়েশিয়া সরকার ভারতের কাছে ক্ষমা চেয়ে নেয় এবং বলে এই ধরনের কাজ আর কখনোই হবে না। এরপর থেকে মালয়েশিয়াতে আর কখনো ভারতীয় শ্রমিকরা অপমানের
শিকার হননি। বরং ভারতীয় শ্রমিকরা মালয়েশিয়াতে নিজেদের দেশের
মত করেই থাকছে। যার জন্য মালয়েশিয়াতে ভারতীয় হিন্দুদের প্রভাব একটু বেশিই থাকে। আর অপরাধ মূলক কাজ ভারতীয় কেন, কোনো দেশের হিন্দুরা ই করে না। এসব আসলে নয়ন চ্যাটার্জী গং নোংরা ভাবে সাম্প্রদায়িকতা ছড়াচ্ছে, যাতে মালয়েশিয়া সরকার হিন্দুদের গ্রহণ না করে। মাত্র ২৪ ঘন্টা ভারত মালয়েশিয়ার সাথে সম্পর্ক বিচ্ছেদ করে ছিলো, এতেই তো মালয়েশিয়া সরকারের খবর হয়ে যায়। মালয়েশিয়াতে ভারতীয় হিন্দুদের উন্নয়ন আরেকদিন তুলে ধরবো।