Sunday, September 19, 2021
Home Bangla Blog রামকৃষ্ণ মিশন: 'সর্বধর্ম সমন্বয়' প্রচার না করে, 'সর্ববর্ণ সমন্বয়' প্রচার করুন।

রামকৃষ্ণ মিশন: ‘সর্বধর্ম সমন্বয়’ প্রচার না করে, ‘সর্ববর্ণ সমন্বয়’ প্রচার করুন।

রামকৃষ্ণ মিশন : ‘সর্বধর্ম সমন্বয়’ প্রচার না করে, ‘সর্ববর্ণ সমন্বয়’ প্রচার করুন। কলকাতার ছেলে তমাল ভট্টাচার্য আফ*গানিস্তানের রাজধানী কাবুলে শিক্ষকতা করতো। সে মার্কিন সেনাবাহিনী ও ভারত সরকারের কৃপায় নিরাপদে কলকাতা ফিরে এলেও, সে আমেরিকান সেনাবাহিনী কিংবা ভারত সরকারের কোন প্রশংসা করিনি।

বরং তমাল ভট্টাচার্য বলেছে, তা*লেবানরা তার সঙ্গে ভালো ব‍্যবহার করেছে – তাই তা*লেবানদের চেয়ে মানবিক ও অমায়িক পরাশক্তি, বিশ্বে দ্বিতীয়টি নেই। অর্থাৎ তমাল ভট্টাচার্যের দৃষ্টিতে, তালে*বানদের সমস্ত মানবতাবিরোধী জ*ঘন্য অ*পরাধ ও নারীর প্রতি ইতিহাসের ব*র্বরোচিত স*হিংসতা ইত্যাদি অপকর্ম সমূহ বৈধ হয়ে গেছে; যেহেতু তা*লেবানরা তমাল ভট্টাচার্যের সঙ্গে ভালো ব্যবহার করেছে!

যত দূর জানা যাচ্ছে এই তমাল একাধারে রোমান ক্যাথলিক, বামপন্থী ও এর চিনা বউ আছে। বউকে নাকি আফগানিস্তানে ফেলে এসেছে। এত ভাল যখন তাহলে তমাল ভট্টাচার্য্য ভারতে আসলেন কেন? সবচেয়ে মজার বিষয় হল ২০ বৎসর আগে তালিবান উৎক্ষাত না হলে তমাল বাবু পড়াবার ক্ষেত্রই পেতেন না।

খাঁটি বামপন্থী
খাঁটি বামপন্থী

প্রশ্ন ওঠে মনে এই ভট্টাচার্য্য মহাশয় কোনো জঙ্গি গোষ্টির চর নয়তো? প্রথমে প্রধানমন্ত্রী র কাছে প্রায় কেদে পড়াফিরে এসে সরীয়ত আইনের প্রশংসা করা কেমন কেমন যেন ঠেকছে। তমাল ভট্টাচার্যদের মতো মানুষরা চিরকাল সনাতনীদের ক্ষতি করে গেছে। এরা হলেন স্যেকুলার  অরুন্ধতী, অমর্ত্য সেন,মমতা বেগম,বিকাশ রঞ্জন,আরও অনেকেই।

তালিবানদের দয়ায় তার নাম হয়েছে শেখ তমাল, পশ্চিম বঙ্গে ফিরে আসাতে শেখ উধাও করেছে সাময়িক ভাবে। সে পশ্চিম বঙ্গের ঐ …. বাহীনিদের হয়ে ট্রেনিং করে এসেছে কিনা ভালো করে খোঁজ নেওয়া প্রয়োজন।

তা*লেবানদের উদ্দেশ্যে প্রদত্ত তমাল ভট্টাচার্যের টেস্টিমোনিয়াল, বাংলাদেশের মিডিয়া ও সোশ্যাল মিডিয়া এমন ফলাও করে প্রচার করেছে, তাতে মনে হচ্ছে- পৃথিবীতে মানবতা প্রতিষ্ঠার একমাত্র সোল এজেন্সি পেয়েছে, আফ*গানিস্তানের তা*লেবানরা।

তমাল ভট্টাচার্য বলেছে, ইস*লাম অত্যন্ত উদার ও সহনশীল ধর্ম। তার ভাষায় ই*সলাম ধর্ম নারী স্বাধীনতা নিশ্চিত করেছে। কিন্তু ‘অত্যন্ত উদারতা-সহনশীলতা’ ও ‘নারী স্বাধীনতা’-র কথা কোরআন ও সহী হাদীসের কোথায় লেখা আছে – তা সে বলেনি। কোরআন ও সহী হাদীসের বাইরে কোনো কিছুই ‘ই*সলাম ধর্ম’ নয়।

আমি কোরআন ও সহী হাদীস পড়েছি। আলেমদের কাছ থেকে তরজমা বুঝেছি। কোরআন ও সহী হাদীসের কোথাও আমি দেখি নি- সেখানে অমু*সলিমদের প্রতি সামান্যতম উদারতা ও সহিষ্ণুতা প্রদর্শনের কথা বলা হয়েছে কিংবা নারী স্বাধীনতার কথা বলা হয়েছে!

তাহলে তমাল ভট্টাচার্য ই*সলামের নামে এসব মনগড়া কথা প্রচার করে – ইস*লামের প্রতি অমুস*লিমদের আকৃষ্ট করার চেষ্টা করলো কেন?

তমাল ভট্টাচার্য সম্পর্কে খোঁজ নিতে গিয়ে, পশ্চিমবঙ্গের মূল ধারার মিডিয়ার মাধ্যমে জানতে পেরেছি – তমাল ভট্টাচার্য পড়াশোনা করেছে ‘রামকৃষ্ণ মিশন’- স্কুলে।

এরকম হাজার হাজার তমাল আছে হায়ারকায়েস্তের মধ্যে ,এরা বাবার নাম প্রকাশ করে না পাসের বাড়ির কাকার নামে বংশ পরিচয় দেয়। তমাল ভট্টাচার্যের মতো অনেক তালেবান প্রিয় অশুভ শক্তি ভারতে রয়েছে । এদের জিনগত ও জন্মগত ত্রুটি রয়েছে । এরা ভারতের মাটিতে থাকলেও এদের মন পড়ে থাকে ভারতের শত্রু দেশের জন্য । এদের ভারতকে অদূর ভবিষ্যতে আরও বড়ো বিপদ আসন্ন । 

তমালের মত মেরুদণ্ডবিহিনের থেকেও অনেক বেশি দায়ি সংবাদমাধ্যম,, যারা অর্থের বিনিময়ে নিজের মা বোন স্ত্রীকে তালেবানে হাতে তুলে দিতে দিধাবোধ করবে না। দেশমাতৃকা মায়ের থেকেও বড় কারন সে মায়েরোও মা,,সামান্য স্বার্থের জন্য যারা সচেতন ভাবে তার ক্ষতি করতে পারে তাদের কাছে অসাধ্য কিছুই নেই৷

‘মিশন’ একটি ইংরেজী শব্দ – যার অর্থ দলবদ্ধভাবে বিশেষ উদ্দেশ্য সাধন করা। কলকাতার এক ভদ্রলোক, আমেরিকা জয়ের কল্পকাহিনী প্রচার করে – ‘রামকৃষ্ণ মিশন’ প্রতিষ্ঠার মাধ্যমে হি*ন্দুদের মাথায় ‘সর্বধর্ম সমন্বয়’ ঢুকিয়ে দিয়েছে।

এই প্রতিষ্ঠানটি উদ্দেশ্যমূলকভাবে প্রচার করে বেড়ায় যে, সনাতন ধর্ম, ইস*লাম ধর্ম ও খ্রি*স্ট ধর্ম আসলে একই। সনাতন ধর্মের শ্রেষ্ঠত্ব আড়াল রাখার করে রাখার জন্য এবং ই*সলাম ও খ্রি*স্টধর্মের প্রতি হি*ন্দুদের শ্রদ্ধাশীল করে তোলার জন্য ― এই কৌশলী অপপ্রচার চালানো হয়।

খ্রি*স্টান ও মুস*লমানদের জনবল বেশী, অর্থ বল বেশী, বাহু বল বেশী। সঙ্গত কারণেই ‘সর্বধর্ম সমন্বয়’ নামক আফিনের নেশায়, দরিদ্র ও অসহায় হি*ন্দুরা ধর্মান্তরিত হতে উৎসাহিত হচ্ছে।

রামকৃষ্ণ মিশনের একজন বিদ্বান মহারাজকে আমি বলেছিলাম, আপনারা ‘সর্বধর্ম সমন্বয়’ প্রচার না করে, ‘সর্ববর্ণ সমন্বয়’ প্রচার করে- হিন্দু সমাজের ক‍্যান্সার ‘বর্ণভেদ প্রথা’ বিলুপ্ত করুন। ভদ্রলোক আমার প্রস্তাবের সরাসরি প্রতিউত্তর না দিয়ে, ঘন্টার পর ঘন্টা উদ্দেশ্যহীন আলোচনা করেছে।

“সর্ব বর্ণ সমন্বয়” এর কথা বললে তাদের অসুবিধা কেন হয় জানিনা। তবে সাধক রামকৃষ্ণের জীবন খুজলে জাতের নামে বা বর্ণের অহমিকার বিরুদ্ধে তার কর্ম যথেষ্ট দৃশ্যমান। 

 

লেখক-কৃত্তিবাস কাশীরাম

আর পড়ুন…..

RELATED ARTICLES

২৬/১১-র মুম্বই হামলার ধাঁচেই নাশকতার ছক: দিল্লি, মুম্বাই, ইউপি তে সিরিয়াল বিস্ফোরণের ঘৃণ্য চক্রান্ত ব্যর্থ করল প্রশাসন!

২৬/১১-র মুম্বই হামলার ধাঁচেই নাশকতার ছক: দিল্লি, মুম্বাই, ইউপি তে সিরিয়াল বিস্ফোরণের ঘৃণ্য চক্রান্ত ব্যর্থ করল প্রশাসন! সবচেয়ে বড় কথা হল আইএসআইয়ের এই সম্পূর্ণ...

আশ্রয় দেওয়া দেশগুলোতে জিহাদ একটি বড় চ্যালেঞ্জ হয়ে ওঠছে।

শরণার্থী : আশ্রয় দেওয়া দেশগুলোতে ইসলামী মৌলবাদিদের জিহাদ একটি বড় চ্যালেঞ্জ হয়ে ওঠছে।নিউজিল্যান্ড ইসলামী জিহাদিদের ছুরি হামলা, হামলাকারী একজন শ্রীলংকান মুসলিম শরণার্থী। অন্য দিকে জার্মানিতে...

কেরালা ভারতে অশান্তির নীরব রাজধানী হয়ে উঠছে। আগামী ১০ বছরের মধ্যে কেরালা পরবর্তী কাশ্মীর হয়ে যাবে।

কেরালা ভারতে অশান্তির নীরব রাজধানী হয়ে উঠছে। আগামী ১০ বছরের মধ্যে কেরালা পরবর্তী কাশ্মীর হয়ে যাবে। কেরালার হিন্দুদের কাছ থেকে ভারতের অনেক কিছু শেখার আছে। কাশ্মীরি...

Most Popular

২৬/১১-র মুম্বই হামলার ধাঁচেই নাশকতার ছক: দিল্লি, মুম্বাই, ইউপি তে সিরিয়াল বিস্ফোরণের ঘৃণ্য চক্রান্ত ব্যর্থ করল প্রশাসন!

২৬/১১-র মুম্বই হামলার ধাঁচেই নাশকতার ছক: দিল্লি, মুম্বাই, ইউপি তে সিরিয়াল বিস্ফোরণের ঘৃণ্য চক্রান্ত ব্যর্থ করল প্রশাসন! সবচেয়ে বড় কথা হল আইএসআইয়ের এই সম্পূর্ণ...

আশ্রয় দেওয়া দেশগুলোতে জিহাদ একটি বড় চ্যালেঞ্জ হয়ে ওঠছে।

শরণার্থী : আশ্রয় দেওয়া দেশগুলোতে ইসলামী মৌলবাদিদের জিহাদ একটি বড় চ্যালেঞ্জ হয়ে ওঠছে।নিউজিল্যান্ড ইসলামী জিহাদিদের ছুরি হামলা, হামলাকারী একজন শ্রীলংকান মুসলিম শরণার্থী। অন্য দিকে জার্মানিতে...

কেরালা ভারতে অশান্তির নীরব রাজধানী হয়ে উঠছে। আগামী ১০ বছরের মধ্যে কেরালা পরবর্তী কাশ্মীর হয়ে যাবে।

কেরালা ভারতে অশান্তির নীরব রাজধানী হয়ে উঠছে। আগামী ১০ বছরের মধ্যে কেরালা পরবর্তী কাশ্মীর হয়ে যাবে। কেরালার হিন্দুদের কাছ থেকে ভারতের অনেক কিছু শেখার আছে। কাশ্মীরি...

মন্দির-মসজিদ সহাবস্থান যতগুলি ধর্মীয় সহিষ্ণুতার বিজ্ঞাপন দেখেন তার সবগুলিই মন্দির আগে প্রতিষ্ঠা হয়েছে তারপর মসজিদ।

মন্দির-মসজিদ সহাবস্থান যতগুলি ধর্মীয় সহিষ্ণুতার বিজ্ঞাপন দেখেন তার সবগুলিই মন্দির আগে প্রতিষ্ঠা হয়েছে তারপর মসজিদ। সাম্প্রতিক সময়ে বাংলাদেশের চট্টগ্রামে একজন মুসলিম যুবক চন্দ্রনাথ ধামে...

Recent Comments

%d bloggers like this: