Home Bangla Blog সন্ত্রাসবাদীর কোন ধর্ম হয় না, তো দেখুন এটা।

সন্ত্রাসবাদীর কোন ধর্ম হয় না, তো দেখুন এটা।

204

আমি ভাবছি……

পাকিস্তানে মুসলমানদের কে মারছে ?
আফগানিস্তানে মুসলমানদের কে মারছে ?
সিরিয়াতে মুসলমানদের কে মারছে ?
ইয়েমেনে মুসলমানদের কে মারছে ?
ইরাকে মুসলমানদের কে মারছে ?
লিবিয়াতে মুসলমানদের কে মারছে ?
মিশরে মুসলমানদের কে মারছে ?
সোমালিয়াতে মুসলমানদের কে মারছে ?
বালুচিস্তানে মুসলমানদের কে মারছে ?

এখন আমি ভাবছি যে যখন এই দেশগুলো ইসলামিক দেশ… তাহলে শান্তি কোথায় ???
আমি ইসলামের ওপর প্রশ্ন করছি না, কারণ সবাই জানেন যে ইসলাম একটি শান্তিপূর্ণ ধর্ম… কিন্তু শান্তি এখানে রহস্যময় ভাবে নিরুদ্দেশ… !!!

আফগানিস্তান, ইরাক, সিরিয়া, লেবানন, ইয়েমেন, মিশর, সোমালিয়াকে কি বজরং দল বা হিন্দু মহাসভা বর্বাদ করেছে ? ওখানে দাঙ্গা করানোর জন্য কি আর. এস. এস. এর লোক গিয়েছিল ?

এ এক অদ্ভূত বিড়ম্বনা,
এখানে কিছু দেশদ্রোহীর কাছে,
ইসরত জাহান ‘মেয়ে’,
কানহাইয়া কুমার ‘ছেলে’,
দাউদ ইব্রাহিম ‘ভাই’,
আফজল হল ‘গুরু’,
কিন্তু,
ভারত ‘মাতা’ নয় !!!
এমনটা… কেন…… ???

বৌদ্ধ + হিন্দু = কোনো সমস্যা নেই,
হিন্দু + খ্রিস্টান = কোনো সমস্যা নেই,
হিন্দু + ইহুদী = কোনো সমস্যা নেই,
নাস্তিক + হিন্দু = কোনো সমস্যা নেই,
বৌদ্ধ + শিখ = কোনো সমস্যা নেই,
জৈন + হিন্দু = কোনো সমস্যা নেই,
শিখ + জৈন = কোনো সমস্যা নেই,
জৈন + বৌদ্ধ = কোনো সমস্যা নেই,
হিন্দু + শিখ = কোনো সমস্যা নেই,

এবার একটু মন দিন…

মুসলিম + হিন্দু = সমস্যা,
মুসলিম + শিখ = সমস্যা,
মুসলিম + বৌদ্ধ = সমস্যা,
মুসলিম + জৈন = সমস্যা,
মুসলিম + ইহুদী = সমস্যা,
মুসলিম + খ্রিস্টান = সমস্যা,
মুসলিম + নাস্তিক = সমস্যা,
মুসলিম + মুসলিম = খুবই বড় সমস্যা !

উদাহরণ দেখুন, যেখানে যেখানে মুসলিম সংখ্যাগরিষ্ঠ, সেখানে তারা সুখে থাকে না আর অন্যকে থাকতেও দেয় না !

দেখুন…

মুসলিম সুখে নেই গাজাতে,
মুসলিম সুখে নেই মিশরে,
মুসলিম সুখে নেই লিবিয়াতে,
মুসলিম সুখে নেই মরক্কোতে,
মুসলিম সুখে নেই ইরানে,
মুসলিম সুখে নেই ইরাকে,
মুসলিম সুখে নেই ইয়েমেনে,
মুসলিম সুখে নেই আফগানিস্তানে,
মুসলিম সুখে নেই পাকিস্তানে,
মুসলিম সুখে নেই সিরিয়াতে
মুসলিম সুখে নেই লেবাননে,
মুসলিম সুখে নেই নাইজেরিয়াতে
মুসলিম সুখে নেই কেনিয়াতে,
মুসলিম সুখে নেই সুদানে,

এখন দেখুন…
মুসলিম সেখানে সুখে আছে, যেখানে তারা সংখ্যায় কম…

মুসলিম সুখে আছে অস্ট্রেলিয়াতে,
মুসলিম সুখে আছে ইংল্যাণ্ডে,
মুসলিম সুখে আছে বেলজিয়ামে,
মুসলিম সুখে আছে ফ্রান্সে,
মুসলিম সুখে আছে ইতালিতে
মুসলিম সুখে আছে জার্মানিতে
মুসলিম সুখে আছে সুইডেনে,
মুসলিম সুখে আছে আমেরিকাতে,
মুসলিম সুখে আছে কানাডাতে,
মুসলিম সুখে আছে নরওয়েতে,
মুসলিম সুখে আছে ভারতে,
মুসলিম সুখে আছে নেপালে,

মুসলমান সেইসব দেশে সুখে আছে !
যেগুলো ইসলামিক দেশ নয়…
আর দেখুন তারা সেই দেশগুলোকেই দোষী করে যেগুলো ইসলামিক দেশ নয়…!
অথবা যেখানে মুসলিমরা নেতৃত্বে নেই…!

মুসলমানরা সবসময় সেইসব দেশকে দোষী করে যেদেশে তারা সুখে আছে…!
আর মুসলমানরা সেইসব দেশকে বদলাতে চায়… যেখানে তারা সুখে আছে !
আর বদলে সেইসব দেশের মত করতে চায়… যেখানে তারা সুখে নেই…!
আর শেষ পর্যন্ত এর জন্য লড়াই করে…! আর একেই বলে…
*ইসলামিক জিহাদ*

এখন সেইসব সংগঠনগুলোকে দেখুন…!
যার দ্বারা তারা দুনিয়া বদলাতে চায়…!

১. আইসিস = জঙ্গি সংগঠন
২. আল কায়দা = জঙ্গি সংগঠন
৩. তালিবান = জঙ্গি সংগঠন
৪. হামাস = জঙ্গি সংগঠন
৫. হিজবুল মুজাহিদিন = জঙ্গি সংগঠন
৬. বোকো হারাম = জঙ্গি সংগঠন
৭. আল নুসরা = জঙ্গি সংগঠন
৮. আবু সয়াফ = জঙ্গি সংগঠন
৯. আল বদর = জঙ্গি সংগঠন
১০. মুসলিম ব্রাদারহুড = জঙ্গি সংগঠন
১১. লস্কর এ তৈয়বা = জঙ্গি সংগঠন
১২. প্যালেস্টাইন লিবারেশন ফ্রন্ট = জঙ্গি সংগঠন
১৩. হেজবুল্লাহ = জঙ্গি সংগঠন
১৪. জামাত এ ইসলামিয়া = জঙ্গি সংগঠন
১৫. আব্দুল্লা আজম ব্রিগেড = জঙ্গি সংগঠন

ইত্যাদি এবং আরো অনেক ইসলামিক জিহাদি জঙ্গি সংগঠন !

এখন এটুকু তো আপনি অবশ্যই বুঝতে পেরেছেন যে…
‘সন্ত্রাসবাদীর’ ‘ধর্ম’ কী… ???

এবার যদি কেউ হিন্দুকে বদনাম করে……
গেরুয়া সন্ত্রাসের নামে, তাহলে……
তাকে সেখানেই……
এই তথ্যগুলো অবশ্যই শোনান……!

কেবলমাত্র এই ধরনের লোকদের জন্যই ইসলামিক জিহাদের বাড়বাড়ন্ত……!

আশ্চর্য…… ঘোর আশ্চর্য…… ?a

%d bloggers like this: