মূর্তি ভাঙার বিশ্বরেকর্ড গড়েছে বাংলাদেশ। বর্বরগুলো কতকিছু স্বাভাবিক করে নিয়েছে! যেন এটা তাদের মৌলিক অধিকার। হাজার বার মূর্তি ভেঙেছে, একটারও বিচার হয় নি। কেউ ধরা পড়ে নি।
একটা গণতান্ত্রিক দেশে এটা কি সাধারণ অপরাধ?
পুলিশ নিষ্ক্রিয়
কারণ পুলিশ জানে মূর্তি ভাঙা সুন্নত। সেও তো মুসলমান!
নেতৃবৃন্দ নিষ্ক্রিয়
কারণ নেতৃবৃন্দও জানে মূর্তি ভাঙা সুন্নত। ভোটেরও ব্যাপার আছে আর তারাও তো মুসলমান!
একটা প্রতিমা ভাঙলে কত মানুষের মন ভাঙ্গে এটা প্রতিবন্ধী মুসলিমরা কখনোই অনুভব করতে পারবে না।
মুসলমান প্রতিবেশী মানেই যে একটা মূর্তিমান আতঙ্ক,  এরা কি এটা বুঝে?
এদের সঙ্গে শুধু মানুষ কেন পশুরাও বসবাস করতে পারবে না! পৃথিবীর কোথাও পারছে না, আর বাংলাদেশ তো নয়া সোনার মদিনা!

প্রতিমা ভাঙার মহোৎসব চলছেই!
নীরবতা সম্মতির লক্ষণ।
রাষ্ট্র নীরব। নীরব সব শুয়োরের বাচ্চারা।