আচ্ছা ধরুন,
আপনার বাড়ি ফাঁকা, স্ত্রী, ছেলে-মেয়ে কে নিয়ে বাপের বাড়ি গেছেন, আপনি আপনার জগবন্ধুকে বাড়ীতে নিয়ে এলেন একটু রঙিন জল পান করবেন, তো যা যা উপকরন লাগবে সব তৈরি, কিন্তু দোকানে গিয়ে দেখলেন দোকান বন্ধ … কেমন লাগে?

তার পর ধরুন, সকাল সকাল প্রাতঃকর্ম করবেন বলে টয়লেট গেলেন, গিয়েই একটা সিগারেট ধরিয়ে আরাম করে বসলেন, সিগারেট শেষ হয়ে গেল কিন্তু কাজের কাজ কিছুই হল না, পেট বলছে বাইরে আসতে চায় কিন্তু আসছে না … কেমন লাগে?

অথবা ধরুন, অপরূপ সুন্দরী এক মহিলা প্রতিদিন আপনার বাড়ীর সামনে দিয়ে যায়, দেখতে দেখতে আপনি তার প্রেমে পড়ে গেলেন, পরিচয় করলেন, তারপর বন্ধুত্ব হল, এবার আপনি ঠিক করলেন আর একটু এগানো যাক, হঠাৎ জানতে পারলেন তিনি অন্য কাউকে ভালবাসেন, সামনেই বিয়ে… কেমন লাগে? 

আচ্ছা ছাড়ুন, ধরুন বাড়ীতে আজ কেউ নেই, ছেলে মেয়ে মামা বাড়ীতে গেছে, স্বামী স্ত্রী ঠিক করলেন আজ একান্তে একটু দুষ্টুমি করবেন, কিন্তু হঠাৎ কলিং বেলের শব্দ, অতিথি এসেছেন অনেকদিন পর… কেমন লাগে?

এতো ভনিতার কি আছে … আসল কোথায় আসি …
ছোট বেলায় রবীন্দ্রনাথের লেখা সেই কবিতাটা যারা পড়েছেন … 
“শুনব হাতির হাঁচি’
       এই ব’লে কেষ্টা
নেপালের বনে বনে
       ফেরে সারা দেশটা।
শুঁড়ে সুড়্‌সুড়ি দিতে
       নিয়ে গেল কঞ্চি,
সাত জালা নস্যি ও
       রেখেছিল সঞ্চি,
জল কাদা ভেঙে ভেঙে
       করেছিল চেষ্টা–
হেঁচে দু-হাজার হাঁচি
       মরে গেল শেষটা।
কেমন লাগে বলুন তো?

ঠিক তেমনই গত সপ্তাহে কেরলের মুখ্যমন্ত্রী পিনারাই বিজয়ন দাবি করেন, আবু ধাবির ‌যুবরাজ শেখ মহম্মদ বিন জায়েদ নাইয়ান প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর সঙ্গে কথা বলেছেন। তিনি কেরলের জন্য ৭০০ কোটি টাকা সাহা‌য্য করতে চান। এনিয়ে তিনি ট্যুইট করেও আমিরশাহি সরকারকে ধন্যবাদ দিয়ে দেন। চারি দিকে সেকুরা থাঙ্কু থাঙ্কু করে আকাশ বাতাস মাথায় করে ব্যানারে ভরিয়ে দিয়েছে… 

অবশেষে খবর এল …
কেরলকে ৭০০ কোটি টাকা সাহা‌য্য করতে চেয়েছিল সং‌যুক্ত আরব আমিরশাহি সরকার। এমনটাই খবর রটেছিল। কেন্দ্র সেই খবরের সত্যতা অস্বীকার করে। এবার সেই একই কথা জানিয়ে দেওয়া হল আমিরশাহি সরকারের তরফে। আমিরশাহির রাষ্ট্রদূত আহমেদ আলবানা সংবাদমাধ্যমে জানিয়েছেন, সং‌যুক্ত আরব আমিরশাহি সরকারের পক্ষ থেকে কেরলকে কোনও নির্দিষ্ট পরিমাণ অর্থ সাহা‌য্যের কোনও ঘোষণা করা হয়নি। কেমন লাগে বলুন তো?
আমার তো খুব কষ্ট হয়েছে, সামনে লোক সভার নির্বাচন, একটা বড় মাছ ছিপে গেঁথে ছিল ভেবেছে, শেষ দেখা গেল কচুরিপানা  …… সেকু মাকুদের না জানি কত না কষ্ট হয়েছে..