কবিরাজ গঙ্গাধর সেন রায়ের জন্ম ১২০৫ বঙ্গাব্দের আষাঢ় মাসে ( ১৭৯৮ খ্ৰীঃ
জুলাই ) মাগুরা সদর। তিনি বিভিন্ন বিষয়ে ৮০টি বই লিখেছেন। “জল্প কল্প তরু
তাঁর শ্রেষ্ঠ গ্রন্থ”। তাহার পিতার নাম ভবানীপ্রসাদ রায় ।গঙ্গাধর সেন
রায়, কবিরাজ –ভারত বিখ্যাত অীয়ুৰ্ব্বেদ চিকিৎসীব্রতী।বাল্যে কুলপুরোহিত
মহাশয়ের নিকট তাহার শিক্ষা আরম্ভ হয় তৎপরে বিভিন্ন চতুষ্পাঠীতে ব্যাকরণ
কাব্য, অলঙ্কার প্রভৃতি পঠ সমাপন করিয়া অষ্টাদশবর্ষ বয়সে সু-প্রসিদ্ধ
কবিরাজ রামকান্ত সেনের নিকট আয়ুৰ্ব্বেদ অধ্যয়ন আরম্ভ করেন । পাঠে তাহার
বিশেষ মনোযোগ ছিল এবং তিনি অতিশয় অধ্যবসায়ী ছিলেন । প্রত্যহ পাঠ্য পুথির
দশ পৃষ্ঠা স্বহস্তে লিখিয়া অধ্যয়ন করিতেন । পাঠ সমাপন করে প্রথমে তিনি
পিতৃ সমীপে গমন করেন। ভবানীপ্রসাদ তখন নাটোরের রাজচিকিৎসক ছিলেন । কিছুকাল
পরে পিতার পরামর্শে কলিকাতায় চিকিৎসা ব্যবসায় আরম্ভ করেন তিনি। একাধিকবার
পাশ্চাত্য চিকিৎসাশাস্ত্র দাবসারীগণ গঙ্গাধরের অসামান্ত শারীর
তত্ত্বজ্ঞানের পরিচয় পেয়ে বিন্মিত ও মুগ্ধ হইয়াছিলেন । প্রধানতঃ
চিকিৎসাব্যবসায়ী হইলেও তিনি বিভিন্ন সংস্কৃত শাস্ত্রে বিশেষ পারদর্শী
ছিলেন । আয়ুৰ্ব্বেদ, তন্ত্র, জ্যোতিধ, স্মৃতি, ষড়দর্শন, ব্যাকরণ, নাটক,
উপনিষদাদির ব্যাখ্যা প্রভৃতি বিভিন্ন প্রকারের প্রায় ৮০টি বই তিনি
লিখেছেন।