তারেক ফাতহ বলেছেন মহাত্মা গান্ধী ভারতের জাতির পিতা হনন কিভাবে।। তারেক ফাতহ হলেন ইতিহাসবিদ সেই সাথে ইসলামিক গবেষক, লেখক ও সাংবাদিক।। উনি মূলত পাকিস্তানের সিন্ধু প্রদেশের বাসিন্দা।। কিন্তু স্বাধীনচেতা লেখনীর জন্য তারেক ফাতহকে তৎকালীন পাকিস্তানের স্বৈরাশাসক আয়ুব খান কারারুদ্ধ করেছিলেন।। কিন্তু থেমে থাকেনি ফাতহর কলম।। তারপর  তারেক ফাতহর উপর দেশদ্রোহীতার মামলা করা হয়।। শেষে উনি পাকিস্তান ছেড়ে কানাডায় চলে যান।।  কিন্তু তারেক ফাতহর একটি বক্তব্য গোটা দেশে আলোড়ন সৃষ্টি করেছে।। তিনি বলেছেন মহাত্মা গান্ধী নাকি ভারতের জাতির পিতা কোনও মতেই না।। মহাত্মা গান্ধী বরং পাকিস্তানের জাতির পিতা বা জাতির জনক।। কারন পাকিস্তান রাষ্ট্র মহাত্মা গান্ধীর সৃষ্টি।। স্বাধীনতার প্রক্ মুহূর্তে মহাত্মা গান্ধী কংগ্রেস তথা জিন্নার মুসলিম লীগের মধ্যে শাসন ক্ষমতার বাটোয়ারা হিসেবে ভারতবর্ষেকে দুই ভাগে বিভক্ত করে পাকিস্তান করেছিলেন।। সেহেতু গান্ধী পাকিস্তানের রাষ্ট্রপিতা।। আর মহাত্মা গান্ধী ভারতের জাতির জনক হতে যাবেন কেন।। ভারতের অস্তিত্ব  হাজার হাজার বছরেরও আগের,পৃথিবীর অন্যতম প্রাচীন রাষ্ট্র।। ভারতবর্ষের শ্রেষ্ঠ  মহাপুরুষরা রাম কৃষ্ণকেও এই ভারতের মানুষ জাতির পিতার উপাধি দেয়নি তাহলে গান্ধী কোন ক্ষেতের।। ভারত মাতার বাবা গান্ধী না স্বয়ং বিধাতা( ঈশ্বর)।।